#তোকে চাই❤ পর্ব ১৮+extra

0
335

#তোকে চাই❤ পর্ব ১৯+extra
#:নৌশিন আহমেদ রোদেলা❤



শুভ্র ভাইয়া বাইকে বসে রাগী দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,এই দৃষ্টির কোনো অর্থ আমি খুজে পেলাম না।।তবে মনের ভিতর বাসা বেধে থাকা ভয়টা যে নড়েচড়ে উঠলো তা বেশ,বুঝতে পারলাম

ভ,,ভ,,ভাইয়া,,আপনি এখানে??

হ্যা তো??(রাগী চোখে)

না,, আপনাকে তো বলেছিলাম যে,,,আসতে হবে না।।আমি ম্যানেজ করে নিবো।।

আমি তোমাকে নিতে আসি নি।।কাজ ছিলে তাই আসছি,,

কথাটা আমার লাগলো,,,ব্যাটা বজ্জাত কথায় কথায় আমাকে অপমান না করলে কি তোর পেটের ভাত হজম হয় না???তোর বউ মরে যাবে শালা।।।আল্লাহ আমাকে আবার তুলে নিও না,,,আমি কিন্তু উনার বউ নই আপাতত ফুপ্পির মেয়ে,,হুহ,,,এই কথাটা মাইন্ডে রেখো কেমন??এই ব্যাটার সামনে দাঁড়ায় থেকে কোনো লাভ নেই,,,খাটাশ টা কাজ করতে করতে শহীদ হয়ে যাক,,,ঢং!!!

ওহ,,,ওকে,,,আচ্ছা সাহেল ভাইয়া,,তো চলুন যাওয়া যাক??(মুচকি হেসে)

হ্যা রোদ চলো,,,বাই শুভ্র তোর সাথে পরে কথা হবে,,,আপাতত তোর বোনকে সঙ্গ দেই(চোখ টিপে)

সাহেল ভাইয়ার কথাটা শুনে যেনো উনার চোখ আরো লাল হয়ে গেলো।।কারনটা বুঝতে না পারলেও ভয়ে ঢোক গিলছি বারবার।।এখান থেকে কেটে পড়ায় আমার জন্য মঙ্গল।।

আব,,সাহেল ভাইয়া,,,চলুন,,এখানে দাঁড়িয়ে অযথা কথা বলার ইচ্ছা থাকলে আপনি থাকেন,,আমি গেলাম।।(নিজে বাচঁলে বাপের নাম,,,বিরবির করে)

আরে,,না না,,,আম কামিং।

আমি বাইকটা পাশ কাটিয়ে যেতে নিলেই উনি শক্ত করে আমার হাত চেপে ধরলেন,,,আমি অবাক চোখে উনার দিকে তাকালাম।।।সাহেল ভাইয়াকে দেখে মনে হচ্ছে,, তিনি অবাকের দিক দিয়ে আমার থেকে কয়েক ধাপ এগিয়ে গেছেন।।।”হা” করে শুধু দেখেই যাচ্ছেন।।।

ক,,,কি হইছে ভাইয়া??এভাবে ধরে আছেন কেন ভাইয়া??আমার লাগছে ভাইয়া,,,,ছাড়ুন ভাই,,,,

চুপপপপ,,,এক লাইনে কয়বার ভাইয়া ডাকো??ভাইয়া ভাইয়া করতে করতে কানের পোকা মেরে ফেললা।।।এখন চুপচাপ বাইকে উঠো।।

কিন্তু ভাই,,,,

আই সেইড স্টপ,,,,উঠো,,

আমি সাহেল ভাইয়ার সাথে যাবো,,আপনি চলে যান,,(মুখ গোমরা করে)

হ্যা,,,শুভ্র তুই যা,,আমি ওকে পৌঁছে দিবো,,নো টেনশন।।

আমি বাইকে উঠতে বলছি রোদ(দাঁতে দাঁত চেপে)

আমি মাথা হেলিয়ে আইসক্রিম টা মুখে দিতে যাবো তখনই উনি আইসক্রিমটা টেনে নিয়ে নিলেন,,,

আরেহ,,,ওটা আমার আইসক্রিম ছিলো,,আপনার খেতে ইচ্ছে করলে আপনি কিনে নেন না,,,,আমারটা নিচ্ছেন কেনো??(ভ্রু কুচঁকে)

তুমি বাচ্চা নাকি যে আইসক্রিম খাবা?আইসক্রিম ইজ নট গুড ফর হেল্থ।।।

সো হোয়াট??তাতে আপনার কি??আমার আইসক্রিম দেন???

বলে হাত বাড়াতেই উনি আইসক্রিম টা মাটিতে ফেলে দিলেন,,,”এবার খাও'”,,,এবার রাগটা চরম পর্যায়ে পৌঁছে গেল,,,শালা জীবনটা তো ত্যানাত্যানা বানিয়ে দিছিসই এখন কি খেতেও দিবি না??

সাহেল ভাইয়া?? আমাকে আরেকটা আইসক্রিম কিনে দেন তো??(মুখ ফুলিয়ে)

ওকে,,আমি আনছি,,,,

সাহিল ভাইয়ার কথার মাঝ পথেই উনি বাইক থেকে নেমে এসে আমাকে কোলে তুলে বাইকে বসিয়ে দিলেন,,,,ঘটনাটা এতো তাড়াতাড়ি ঘটলো যে আমি আর সাহেল ভাইয়া দুজনেই ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলাম।।।সাহেল ভাইয়ার মুখটা ছোট হয়ে গেলো।আমারও মেজাজ খারাপ হচ্ছে,,,এটা কোন ধরনের অসভ্যতা??যত্তোসব আজাইড়া পাবলিক।।উনি হঠাৎই বাইক থামিয়ে দিলেন।।।ধমকের সুরে বলে উঠলেন নামো।।।আমিও বাধ্য মেয়ের মতো নেমে দাঁড়ালাম,,চারদিকে তাকিয়ে বুঝতে পারলাম আমরা কোনো আইসক্রিম পার্লারের সামনে দাঁড়িয়ে আছি।।উনি বাইক পার্ক করে,, সামনের দিকে হাঁটা দিলেন,,যেতে যেতে বললেন,,,”চলো”,,,আমিও বাধ্য মেয়ের মতো উনার পিছু নিলাম।।ভিতরে গিয়ে আমাকে একটা চেয়ারে বসতে বলেই উনি চলে গেলেন।।আজিব মানুষ,,,একটু আগেই বললো,, আইসক্রিম ইজ নট গুড ফর হেল্থ,,,আর এখন আইসক্রিম পার্লারেই চলে আসছে,,যত্তোসব ফাতরা পোলাপাইন।।। এতোই যদি আইসক্রিম খাওয়ার শখ হয়ে থাকে তো ওখানেই খেতে পারতেন,,এখানে আসার কি দরকার ছিলো শুনি??বসে বসে উনার চৌদ্দগোষ্ঠী উদ্ধার করছিলাম,,বেচারা আইসক্রিমটার জন্য খুব মন খারাপ হচ্ছে,,,তখনি উনি এসে সামনে বসে পড়লেন,, উনার চোখে-মুখে রাগ স্পষ্ট।।আমি দুই একটা ঢোক গিলে আসীম সাহস নিয়ে বলে উঠলাম৷৷

ভাইয়া,,,আমরা এখানে কেনো??,আইসক্রিম খাওয়ার হলে তো ওখানেই খেতে পারতেন ভাইয়া,,,

চুপপ,,,একদম চুপপ।।কিসের ভাইয়া হ্যা?আমি তোমার ভাই লাগি??(রাগী চোখে)

হ্যা,,,, মামুর ছেলে তো ভাইয়াই হয়।।তাই না ভাইয়া??(ইনোসেন্ট ফেস নিয়ে)

আবার ভাইয়া??আরেকবার ভাইয়া ডাকলে চড়াই দাঁত ফেলাই দিবো।।বাবা-মা তোমার মুখে ভাইয়া শুনলে কি ভাববে??

এখানে ভাবাভাবির কি আছে আজিব,,,ভাইকে ভাই বলবো না???(অবাক চোখে)

আচ্ছা??(দাঁতে দাঁত চেপে)আমি তোমার ভাই না??

তা নয়তো কি??

প্রেকটিক্যালি দেখাই আমি তোমার কি??(ভ্রু নাচিয়ে উঠে দাড়ালেন)

উনার দাঁড়ানো দেখেই আমার প্রানপাখি উড়ে যায় যায় অবস্থা।।উনি আমার পাশে বসে পড়লেন,,আমার তো রীতিমতো কাঁপা-কাঁপি অবস্থা,,,উনি আমার কানের কাছে স্লো ভয়েজ এ বলে উঠলেন,,,

পাবলিক প্লেসে বাস,,,

আর কিছু বলার আগেই,,ওয়েটার প্রায় ত্রিশটা আইটেমের আইসক্রিম রেখে গেলো,,,,এগুলো দেখে আমার চোখ বেরিয়ে আসার উপক্রম,,,, এসব কি??ভয় টয় ভুলে বলে উঠলাম,,

এসব কি??এতো আইসক্রিম কার জন্য??(অবাক হয়ে)

তোমার জন্য(শয়তানী হাসি দিয়ে)

মানে??(চিৎকার করে)এত্তোগুলো আমার জন্য??পাগল নাকি আপনি??

হুহ,,,খুব আইসক্রিম খাওয়ার,শখ না??এখন আমার সামনে সবকটা খাবা,,,স্টার্ট(দাঁতে দাঁত চেপে)

পাগল নাকি??ইম্পসিবল

পসিবল বেবি,,,এবরিথিং ইজ পসিবল।।।তোমার দাঁত কেলিয়ে আইসক্রিম খাওয়ার শখ আজ মেটাবো।।।শুরু করো,,,(রাগী গলায়)

আমি উনার দিকে করুন চোখে তাকিয়ে আছি,,,কিন্তু উনি আমাকে পাত্তা না দিয়ে আবার ধমক দিয়ে উঠলেন,,,কি আর করা??বাধ্য মেয়ের মতো খেতে শুরু করলাম।।।আল্লাহ আমাকে একখান জামাই দিছে,,,যে কি না ওলওয়েজ আমাকে মারার প্ল্যান করতে থাকে,,,বেশি দিন বাঁচুম বলে মনে হয় না,,,,বাঁচার আশা ক্ষীণ,,,,

#তোকে চাই❤
#নৌশিন আহমেদ রোদেলা❤
extra part❤❤


আমি খুব ধীরে সুস্থে একটা আইসক্রিম শেষ করলাম।।আইসক্রিমটা শেষ করে ওয়েটারকে ডাক দিয়ে বললাম,,,”প্লিজ এগুলো প্যাক করে দেন”,,ওয়েটার ইয়েস ম্যাম বলে মাথা নাড়ার সাথে সাথেই,,,উনি হুংকার দিয়ে উঠলেন,,

কিসের প্যাকিং??তুমি এগুলো শেষ করবা এবং সেটা এখনই,,,,(রাগী চোখে)

কেনো??(ভ্রু কুঁচকে)

কেনো মানে??আমি বলছি তাই,,,

আপনি বললেই খেতে হবে কেন??(ভ্রু নাচিয়ে)

বেশি কথা না বলে খাও,,নয়তো আমার থেকে খারাপ কেউ হবে না,,,,(দাঁতে দাঁত চেপে)

এমনিতেও আপনার থেকে খারাপ এই পৃথিবীতে আর দুটি নেই,,,ইউ আর দা ওয়ান পিস,,,নতুন করে আর খারাপ কি হবেন??

কি বললা??(রাগী গলায়)

যা বলছি ঠিক বলছি,,তাছাড়া আপনি তো সেইরকম ডোমেনেটিং পার্সোন,,,অন্যের বউকে জোড়াজোড়ি করছেন।।

আমি আবার কার বউকে কি করলাম??(অবাক হয়ে)

কেন??আমাকে কি চোখে পড়ে না??আমার সাথেই তো জোড়াজোড়ি করছেন।।

কিহ,,,তুমি অন্যের বউ??(ভ্রু কুঁচকে)

হ্যা,,বেচারা দুনিয়ার কোন কোনায় আছে কে জানে??আপনি আমাকে একা পেয়ে এভাবে অত্যাচার করছেন।।(মুখ গোমরা করে)

হোয়াট দ্যা হেল??তুমি অন্যের বউ হলে আমার কি হও শুনি??(দাঁতে দাঁত চেপে)

কেনো বোন,,(দাঁত কেলিয়ে)

হোয়াট???(চিৎকার করে)

চেচাচ্ছেন কেন??আপনিই তো তখন আপনার ফ্রেন্ডদের বললেন,, আমি আপনার ফুপ্পির মেয়ে,,এখন আমি ভাইয়া বললে চেচান কেন??আপনি বোন বললে সমস্যা নেই আর আমি ভাইয়া ডাকলেই সমস্যা কেন কেন???

স্যাট আপ স্টুপিড গার্ল।।আমি ওদের কখন বললাম যে তুমি আমার বোন??

ফুপ্পির মেয়ে বলছেন,,,তাতে কি বোন বুঝায় না??

ইডিয়ট,,,আমার সাথে বিয়ে হলেও তুমি যেমন আমার ফুপির মেয়ে,,,ভবিষ্যতে দশ বাচ্চার মা হলেও তুমি আমার ফু্প্পির মেয়েই থাকবা,,,নাকি মা চেঞ্জ হয়ে যাবে???

আজিব মা চেঞ্জ হতে যাবে কেন??কি বোঝাতে চাচ্ছেন আপনি??

আমি বোঝাতে চাচ্ছি,, আমি ভুল কিছু বলি নি কিন্তু তুমি ভুল বলছো,,,

মানে??

ইউ স্টুপিড,,, তুমি কি আমার জিএফ??(আমি মাথা নাড়লাম)তো আমিও মানা করছি যে তুমি আমার জিএফ নও।।।আমি বলেছি,, তুমি আমার ফুপ্পির মেয়ে,,,এটা তো সত্যি তাই না??(আমি আবারও হ্যাবোধক মাথা নাড়লাম)আমি তো এটা একবারও বলি নাই যে তুমি আমার বোন,,,বলছি কি??(আমি আবারো মাথা নাড়লাম,,,না সে বলে নি)তাহলে এখানে আমার ভুলটা কি???সবটা ওদের বোঝার ভুল,,,

এবার আমার রাগ লাগছে,,,শালা এতো পেচায় বললে কে না বুঝতে ভুল করবে??সবার মাথায় তো আর তোর মতো ছিট নাই।।

কেন আপনি সরাসরি বলতে পারলেন না??যে আমি আপনার বউ??(রাগী চোখে)

প্রয়োজনবোধ করি নি।।

শালা তোর প্রয়োজন বোধ দিয়ে তুই জোস বানাই খা,,,প্রয়োজন বোধ করি নি,,হুহ।।(মনে মনে)

খুব ভালো কথা,,আপনি তখন প্রয়োজনবোধ করেন নি,,,এখন আমি প্রয়োজনবোধ করছি না,,,#আমার মামুর ছেলে,,হুহ

বলেই উঠে চলে এলাম।।।সবকিছুর একটা লিমিট আছে।।লাইফটা বিরক্তির একটা ডিব্বাই পরিনত হয়েছে,,,হোয়াট দ্যা হেল ইয়ার।।।”প্রয়োজনবোধ করি নি”,,,,এটার মানে কি??উনার প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে আমার লাইফ চলবে নাকি??উনাকে এখন আর সহ্য হচ্ছে না,,তাই উনাকে বের হতে দেখেই একটা রিকশা নিয়ে চলে এলাম।।কিন্তু খাটাশ বলে কথা,,এতো ইজিলি আমাকে ছাড়বে নাকি??হঠাৎই খুব স্পিডে এসে রিকশার একদম সামনে বাইক দাঁড় করালেন,,বৃদ্ধ রিকশাচালক এমন একটা আনএক্সপেক্টেট বিষয় ঠিক সামলে উঠতে পারলেন না,,আর আমি গিয়ে পড়লাম রাস্তায়।।।হাতের বিভিন্ন জায়গায় হয়তো ছিলে গেছে,,,হাটুতেও বড্ড জ্বালা করছে।।।নিজের অজান্তেই চোখ থেকে পানি বেরিয়ে এলো।।।নিজেকে নিজের কাছেই বোঝা মনে হচ্ছে,,,বিয়ের পর থেকে একটা দিনও শান্তিতে থাকতে দেন নি।।আমি উনার সমস্যাটাই বুঝে উঠতে পারছি না,,,না আমাকে কাছে টেনে নিচ্ছে,,, না আমাকে দূরে যেতে দিচ্ছে,,,কি চান উনি??

#চলবে,,,

(সবার রিকুয়েস্ট এ এক্সট্রা পার্ট দিলাম,,,আর “তুমি আছো তাই” এই গল্পটার জন্য যারা ওয়েট করছেন,,,তাদের বলছি।।ওটা রাতে দিবো।।ওয়েট করার জন্য ধন্যবাদ)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here