LOVE❤ part:01

0
171

#LOVE❤

part:01
Writer: Suvhan Årag(ছদ্মনাম)

-তুই সত্যিই বিয়েতে রাজি তো
-হ্যাঁ মা আমি রাজি
-দেখ আবেগ আমি কিন্তু তোর মনের ওপর জোর দিয়ে কোনো কাজ করতে চাই না
-না বাবা তুমি নিশ্চিন্ত থাকতে পারো।তুমি শুধু আমার ব্যবস্থা করে দেও আমি কালই সিলেট গিয়ে আমাদের ওখানকার কোম্পানিতে জয়েন করতে চাই।আমি রিল্যাক্স চাই বাবা
-ok my son।তুমি ঘুমিয়ে পড়ো

নিজের রুমে এসে দরজা বন্ধ করে দিলো আবেগ

এমন সময় নোভার ফোন

-আবেগ তুমি ফোন ধরছো না কেনো
-আসলে আমি ডিনারে ছিলাম
-ও আচ্ছা ।আবেগ একটা সত্য কথা বলবে
-কি
-তুমি সত্যিই আমাকে বিয়ে করতে রাজি তো
-,,,,,,,,,
-উওর দাও

একটা লম্বা দীর্ঘশ্বাস নিলো আবেগ যেনো কতোদিনের পাথরচাপা কষ্ট বুক থেকে নামানোর বৃথা চেষ্টা করছে

-হ্যাঁ নোভা আমি রাজি
-আরেকটা কথা ছিলো
-কি
-তুমি কি রিদিতাকে ভুলতে পেরেছো?
-,,,,,,,,
-প্লিজ এই উওরটা আমাকে দেও।আমি কোনো সংশয় নিয়ে নতুন জীবন শুরু করতে চাইনা আবেগ।প্লিজ উওর দাও
-নোভা তোমাকে বলেছি না রিদি র নাম তুমি আমার সামনে নেবে না
-কেনো নেবো না বলতে পারো।আজ তিন মাস ও হয়নি তোমাদের ডিভোর্স হয়েছে।এর মধ্যে তুমি আমার সাথে বিয়েতে মত দিলে।তোমার মনে যদি রিদিতাকে নিয়ে আজো কোনো ফিলিংস থাকে তুমি আমাকে বলতে পারো।কিন্তু প্লিজ তুমি ওর জন্য নিজের মনে জায়গা রেখে আমাকে শুধু শুধু কষ্ট দিয়ো না।প্লিজ ।আমি এটা নিতে পারবো না।আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি আবেগ অনেক
-নোভা প্লিজ কেঁদো না।আমি রিদিকে শুধু ঘৃণা করি শুধু ঘৃণা ।

বলেই ফোন কেটে দিল আবেগ

রিদির ছবির সামনে গিয়ে দাঁড়ালো

-কি দোষ ছিলো আমার ।খুব ভালোবেসেছিলাম এই তো।খুব ভালোবেসেছিলাম তোকে।এই প্রতিদান দিলি তুই আমার ।কি কমতি রেখেছিলাম তোর যে আমার মন নিয়ে এভাবে খেললি।দুইটা বছর দুইটা বছর সংসার সাজালাম তোকে নিয়ে ।তুই নিমিষেই ভুলে গেলি একবারও মনে পরলো না আমার কথা।শেষমেশ কি না আমার বন্ধুর সাথে প্রেমলীলায় মেতে উঠলি ।কেনো রে কেনো করলিরে এমন কেনোওওওও

রিদির ছবিটা দেওয়াল থেকে নিয়ে ছুরে ফেলে দিল

-চাইনা তোকে।তোর কিছু রাখবো না।তোকে চাইনা আমার ।কিন্তু আমি যে পারছি না।চোখ বুজলে যে তোর ঐ মুখটা ভাসে আমার বুকের রক্তক্খরন হয় তোর জন্য ।ছেড়ে ই যদি যাবি তবে এলি কেন।কেনোওও

অন্ধকার ঘরের মাঝে বসে থাকতে আজ আর ভয় লাগে না রিদিতার।যে মানুষটাকে জীবন দিয়ে ভালোবাসলো আজ সেই মানুষটাই তাকে ছুড়ে দিলো অন্ধকারে

-জানিস তোর বাবা আমাকে খুব ভালোবাসতো।কিন্তু দেখ আমাকে একবার বিশ্বাস করতে পারলো না।তোর বাবা এখন নিশ্চয়ই নতুন সংসার সাজাচ্ছে বল ।আচ্ছা তুই তো জানিস তোর মা কিছু করে নি ।তুই ঠিক তোর বাবাকে একদিন বলবি বল ।

আনমনে পেটে হাত দিয়ে এসব বুলি আওরাতে থাকে রিদিতা

তার ভেতর যে বেড়ে উঠছে একটা অস্তিত্ব ।হ্যাঁ অস্তিত্ব ।তার আর আবেগের ভালোবাসার অস্তিত্ব তাদের দুজনের ❤

চলবে——

আপনাদের সাড়া পেলেই নেক্সট দেবো নইলে না

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here