Surprise Lover -Part 29+30

0
87

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:29+30

সানভি দৌড়ে নিছে এলো,,তার পিছন পিছন আরোও আসছে,,,,,সানভি তার মায়ের পিছনে লুকালো,,,,আরোও তার ফুফির সামনে ঘুরে ঘুরে সানভিকে ধরার চেষ্টা করছে,,,,ফুফি বললো,,,,,

ফুফি :কি হয়েছে সানভি আসতে আসতে না আসতেই মেয়েটাকে ঝালাচ্ছিস,,,,,,

আরো:ফুফি গো দুঃখের কথা কি বলি,,,,তোমার গুনুধর ছেলে আমার শান্তির ঘুমটা নষ্ট করে দিল,,(কান্নার ভান করে বললো)

ফুফি:সানভি???

সানভি:মম আমার কথাটা শুনো,,,,

ফুফি:কি বলবি তুই,,মেয়েটা কতো Tired ছিলো,,আর তুই,,

সানভি:উফ শুনো,,,কাল রুহ আমাকে বলেছে ওকে University এর সব information+ভর্তি হওয়ার জন্য যা যা প্রয়োজন সে সব করে দিতে,,আমি তাই করেছি,,এর জন্য ওকে ডাকতে গিয়েছিলাম,,আমার সাথে ওর এখন University যেতে হবে,,,

ফুফি:কি??কাল তো মাত্র এলি,,

আরো:ফুফি কয়েক মাস পর Exam,,

ফুফি:ওও এটাও ঠিক,,আচ্ছা যা ফ্রেস হয়ে আ,,

আরো:ওয়েট আমি ফ্রেশ হয়ে আসছি,,,,,

আরো এক দৌড়ে ওর রুমে এসে ফ্রেশ হয়ে নিছে এলো,,,,,হালকা নাস্তা করে বেড়িয়ে পরলো,,,,,,,,ভার্সিটি চলে এলো দুজন,,,,,সানভির একটা ফ্রেন্ডের বাবা ভার্সিটির প্রিন্সপাল হওয়ায় ভর্তি হতে তেমন অসুবিধা হয়নি,,,,,,,,,

সানভি আরোকে নিয়ে বাড়িতে চলে আসলো,,,বিকালে আরোকে নিয়ে ঘুরতে বের হয়,,,,,,,অনেক মজা করলো,,,,সানভি যানে আরো Ice-cream পছন্দ করে তাই আরোকে Ice-cream খাওয়ালো,,,,,ঘুরাঘুরির পর বাসায় চলে এলো,,,,,,

পরদিন,,

আরো ডার্ক রেড কালার লং টপস ব্লাক লেডিস জিন্স পরেছে,,,,,গলায় একটা স্কার্ফ ঝুলানো,,কানে স্টারের রিং,,, আরোকে স্টাইলিশ লাগছে+খুব সুন্দর লাগছে,,,,,,

সানভি:কইটা ছেলেকে পাগল করবি কে জানে,,

আরো:থাপরাইয়া উগান্ডায় পাঠাবো,,চল,,,

সানভি:প্রশংসা ও করতে নেই,,,,,

আরো হাসলো,,,,সানভি আরোকে নিয়ে ভার্সিটিতে আসলো,,,,সানভি বললো,,,,

সানভি:তুর কি কোনো সমস্যা হবে??আমার অফিসে একটা জরুরি মিটিং আছে,,,

(সানভি পড়ালেখা শেষ করে তার বাবার সাথে অফিস দেখাশুনা করছে)

আরো:আরে না প্রবলেম হবে না,,তুই যা,,

সানভি:ঠিক তো??

আরো:পাক্কা,,আর প্রবলেম হলে ফোন দিবো কেমন?

সানভি:ওকে,,,,সাবধানে থাকিস,,,,

আরো মাথা নেড়ে হ্যা বললো,,,,সানভি গাড়ি নিয়ে চলে গেল,,আরো ঘুরে ঘুরে ভার্সিটির চারপাশে দেখতে লাগলো,,,,,আরোর অনেক ভালো লেগেছে,,, কিন্তু অনেক অসস্তি হচ্ছে,,কাউকে চিনে না,,,,,সাজি আর জান্নাত থাকলে কতই না,ভালো হতো,,ওদের কথা মনে পরলে আরোর চোখের কোণে পানি এসে গেল,,,,,,,আরো ক্লাস রুমে গেল,,,তার,পাশের সিট এখনো খালি,,,,হঠাৎ একটা মেয়ে তার,পাশে বসলো,,,মেয়েটা আরোকে বললো,,,

-হাই,, আমি ফারিশা তিন্নি,,,

আরো:আমি আরোহি আফরিন,,,

তিন্নি :Friends হতে পারি,,আসলে আমি নিউ,,,

আরো:অবশ্যই,, আমিও নিউ,,,

তিন্নি :Wow great,, আজ থেকে যেহেতু আমরা ফ্রেন্ডস তাহলে no তুমি Only তুই,,

আরো:ওকে,,,,তিনু,,

তিন্নি আরো কে রুহি ডাকে,,,এর মধ্যে তাদের অনেক ভালো বন্ধুত্ব হয়ে যায়,,,,আরো তিন্নির মাঝে সাজি আর জান্নাতকে দেখতে পেল,,কারণ তিন্নি ও একটু চঞ্চল একদম সাজি আর জান্নাতের মতো,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

কয়েক মাস পর,,,,

আরোর সাথে তিন্নির অনেক ভালো বন্ধুত্ব হয়ে যায় ঠিক সাজি আর জান্নাতের মতো,,,এ কয়েক মাসের মধ্যে অনেক কিছু পাল্টে গেছে,,সাজি আর জান্নাত আরো চলে যাওয়ার পর তারাও অন্য কলেজে ভর্তি হয়,,,,,,,আয়ান আরোকে অনেক খুজেছে কিন্তু পায়নি,,,প্রতিদিন সে কলেজে আসতো শুধুমাত্র আরোকে দেখার আশায় কিন্তু প্রতিবার হতাশ হয়ে যায়,,,,সাজিকে আর জান্নাতকে অনেকবার বলেছে যে,, যেন আরো কোথায় আছে সেটা বলে,,কিন্তু তারা প্রমিস ব্রেক করতে পারবে না,,,,সাজি আবিরকে সবসময় এভোয়েড করে,,আবির অনেক কষ্ট পায়,,আরোর সাথে প্রতিদিন কথা হতো সাজি আর জান্নাতের,,,,,আরো কয়েক সময়,প্রায় কেদেঁই দিতো,,,, আয়ান কলেজ থেকে চলে এসে তার ড্যাডকে বললো,,,,,

আয়ান:ড্যাড একটা কথা ছিল,,,

জুবরান চৌধুরি:কি কথা,,

আয়ান:ড্যাড আমি কাল থেকে অফিস জয়েন করবো,,,

জুবরান চৌধুরি:তুমি ঠিক আছো তো??

আয়ান:হুম ড্যাড,,,

জুবরান চৌধুরি :অনেক খুশি হয়েছি বাবা,,,,

আয়ান মৃদ হেসে ওর রুমে চলে গেল,,,,দেওয়ালের ঝুলানো সেই ছবিটার সামনে দাড়িয়ে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আরো উপরে যতোই হাসি খুশি থাকুক না কেন,,রাত হলে আয়ানের সব স্মৃতি তাকে ঘিরে ধরে,,,,,প্রতিদিন সে আয়ানের কথা ভেবে কান্না করে,,,,

আরো এখন সারপ্রাইজ পছ্ন্দ করেনা,,,সারপ্রাইজ নামটা শুনলেই আয়ানের কথা মনে পড়ে যায়,,,এই তো সেদিন,,,,

সানভি একটা টেডিবিয়ার আর অনেক Ice-cream কিনে নিয়ে আসে,,,,আর সেগুলো ছাদে রাখে,,,আরোর রুমে গিয়ে সানভি বললো,,,

সানভি:রুহ আসতে পারি,,,

আরো:আরে পারমিশন কেন নিচ্ছিস,,

সানভি:তুর জন্য একটা সারপ্রাইজ আছে,,,

আরোর মুখটা সাথে সাথে ফ্যাকাশে হয়ে গেল,,,আরো বললো,,

আরো:ভাইয়া তুকে একটা কথা বলছি রাগ করিস না,,আমার সারপ্রাইজ ভালো লাগে না,,,কখনো সারপ্রাইজ নামটা আমার সামনে নিবি না,,

সানভি:রেগে যাচ্ছিস কেন,,আর,,

আরো:প্লিস ভাইয়া,,,

সানভি:আচ্ছা আচ্ছা,,,Gift হিসেবে তো নিতে পারিস,,প্লিস,,আমি দিচ্ছি নিবি না??

আরো:অবশ্যই নিবো,,

সানভিও খুশি হয়ে গেল,,,,পরেরদিন সানভি আরোকে নিয়ে শপিং করতে যাই,,শপিংয়ে গিয়ে আরো একটা ড্রেস দেখতে লাগলো,,,,তার ঠিক অপর পাশে আয়াজ,,আরো এখনো দেখনি,,,,আয়াজ দেখলো আরো একটা ড্রেস দেখছে,,,আশাজ গিয়ে বললো,,,

আয়াজ:সুন্দর লাগবে ড্রেসটা নিয়ে নাও,

আরো:হুম যানি,,,আরো কিছু খেয়াল না করে কথাটা বললো,,কি মনে পিছন ফিরলো,,,সাথে সাথে মাথা গরম হয়ে গেল,,নিজেকে কন্ট্রোলে রেখে বললো,,

আরো:আরে আরে পিয়াজ সাহেব যে,, তো আপনি এখানে??নাকি কে পেয়াজ নিচ্ছে ভাল ক্রমে আপনি টুগুস করে পরে গিয়েছেন,,

আয়াজ Shocked আরোর কথা শুনে,,,,

আয়াজ:এই তোমাকে না বলেছি আমার নাম আয়াজ,,

আরো:ওই তো পিয়াজ,, আয়াজ পিয়াজ একি তো হলো,,,,,,ধুর আপনার সাথে কেন এতো কথা বলছি,,আমার তো পেয়াজ পছন্দ না,,, Bye,,

আরো হনহন করে চলে গেল,,পেয়াজ বেচারা থুক্কু আয়াজ এখনো দাড়িয়ে আছে,,,,,,আরো রেগে নিজে নিজে বকবক করতে লাগলো,

আরো:শাঁকচুন্না বেটা পিয়াজ,, মাথাটা গরম করে দিল,,,,ইই ইচ্ছা করছে ডান্ডা দিয়ে তার মাথা ফাটায়,,

সানভি :ওই পাগলের মতো বকবক জরছুস কেন রে,,

আরো:ধুর বাসায় চল,,

সানভি:তুই ও না,,চল,,

দুজনে বাসায় চলে এলো,,কয়েকদিন পর সানভি আরোকে নিয়ে ভার্সিটিতে এলো,,,,সানভি গাড়ি থেকে বের হতে তিন্নির চোখ আটকে যায় সানভিকে দেখে,,,আরো গিয়ে তার পাশে দাড়ালো,,,আরো বললো,,

আরো:ও তিনু কই হারায় গেলি,,

তিন্নি:কককই,,,

সানভি এতোক্ষণে তিন্নিকে খেয়াল করলো,,মেয়েটার মধ্যে অদ্ভুদ মায়া আছে,,সানভি এখনো তাকিয়ে আছে,,আরো বললো,,,

চলবে!!
😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:30

সানভি এতোক্ষণে তিন্নিকে খেয়াল করলো,,মেয়েটার মধ্যে অদ্ভুদ মায়া আছে,,সানভি এখনো তাকিয়ে আছে,,আরো বললো,,,

আরো:তিনু Meet my গুনুধর ভাই

তিন্নি হাত বাড়িয়ে দিয়ে বললো,,

তিন্নি:হাই আমি ফারিশা তিন্নি,,

সানভি: সোহায়ের সানভি,,,(হাত বাড়িয়ে)

দুজন কিছুক্ষন একে অপরের দিকে তাকিয়ে থাকলো,,,,আরো বললো,,

আরো:দেখা শেষ??এবার কি আমরা যেতে পারি?

সানভি:ও হ্যা,, যা,,

দুজনে যেতে লাগলো,,তিন্নি কিছুক্ষন পরপর পেছন ফিরে তাকাচ্ছে,,,,সানভির চোখে চোখ পরতে আবার সামনের দিকে ফিরে যায়,,সানভিও চলে যায় গাড়ি নিয়ে,,,

৭বছর পর,,,,,কম তো নয়,,চোখের পলকে যেন কেটে গেল এই সাতটা বছর,,,এই সাত বছরে অনেক কিছু পাল্টে গিয়েছে,,,তিন্নি আর সানভির রিলেশন চলছে,,,,,আরো এখনো আয়ানের স্মৃতি মনে করে প্রতি রাতে কেঁদে বালিশ ভিজায়,,আর আয়ান???সে এখন রুক্ষ মেজাজের হয়ে গেছে,,সামন্য বিষয়ে ত্রুটি দেখলেই সেদিন সবার অবস্তা নাজেহাল,,,অফিসের সব কর্মচারী বাঘের মতো ভয়ে থাকে,,,জান্নাত আর জিদানের বিয়ে হয় যায়,,জান্নাতের অবশ্য অনেক মন খারাপ ছিল আরো না থাকায় কিন্তু কি করার,,,সাজি আবিরের জন্য এখনে কষ্ট পায়,,,আর আবিরও সাজিকে খুজতে খুজতে ক্লান্ত,, এখনো তার অপেক্ষায় আছে,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

ব্লাক গাউন ওপরে ডক্টরের পোশাক,,,,চোখে গোল গোল চশমা পড়ে দৌড়ে এসে সানভিকে ধরে ঘুরতে লাগলো,,সে আর কেউ নয়,,আরো,,,

সানভি :বইন কি করছিস,,মাথা ঘুরাচ্ছে আমার,

আরো সানভি কে ছেড়ে ফুফিকে জড়িয়ে ধরলো,,ফুফি বললো,,

ফুফি:আমার মামনিটা আজ বেশি খুশি মনে হচ্ছে,,,,,

আরো:হুম অনেক অনেক অনেক খুশি,

ফুফি:তাই,,কি কারনে এতো খুশি??

আরো:Guess করো দেখি,,

ফুফি:বাবা রে বাবা এসব করতে পারবো মা,,বলনা আমার তর সইছে না,,,

আরো ফুফির কাধে দুই হাত রেখে বললো,,

আরো:ফুফি আমাকে এই ,,,,,,,,,,,,,,,, হসপিটালের জন্য একজন গুড ডক্টর হিসেবে সিলেক্ট করেছে ফুফি,,,

সানভি:কি??????????মানে রুহ তুই কি সত্যি বলছিস??

আরো:আব্বে গাধা মিথ্যা বলতে যাবো কোন দুঃখে,,,,

ফুফি:অনেক খুশি হয়েছি মা,,,আমি যায় তুর ফুফা কে বলে আসি,,

আরো:ওকে আমিও মাম্মাম,, সাজি,জান্নাতকে কল করতে হবে,,

আরো সাজি আর,তার,মাম্মামকে খবরটা দিয়ে জান্নাতকে যেই না কল করতে যাবে,,এমন সময় জান্নাতের কল,,,,,আরো অবাক হলো,,কল রিসিভ করে বললো,,

আরো:আরে আমি তুকেই কল করতে যাচ্ছিলাম,,,

জান্নাত:আরো তুর সাথে অনেক Important কথা আছে,,

আরে:তো বলনা কি কথা,,

জান্নাত:আসলে আয়ান স্যার,,,

আরো:প্লিস জান্নাত ওনার কথা বলিস না আমাকে,,ভালো লাগছে না,,

জান্নাত:তুই বলতে তো দে,

আরো:না,,ওনার,কথা বলবি না,,,

জান্নাত:প্লিস,শু,

আরো কল কোটে দিল,,,,

আরো নিজের রুমে আসে,,,,দীর্ঘশ্বাস নিয়ে বারান্দায় দাড়ায়,,,আর পুরোনো কথা ভাবতে থাকে,,সেদিন আয়ান আরোর কাছে জিজ্ঞাস করছিল,,,
,,,,,,,,,, ,,,,,,,,,,,

আয়ান:আচ্ছা মিস কিউটিপাই,, তোমার Big dream কি??

আরো:আমার Big dream তো অনেক আছে,,কোনটা বলবো??

আয়ান:আরে যেটা তোমার ইচ্ছা সেটা বলো,,

আরো:ওকে,,আমার 1st dream,, অনেক বড়ো ডক্টর হওয়া,,,এই ইচ্ছেটা আমার ছোটবেলা থেকে,,,,আর একটা ইচ্ছা হলো,,,

আয়ান:কি??

আরো আয়ানের গাল টেনে দিতে দিতে বললো,,

আরো:আর বিয়ের পর এই Attitude বিল্লুর গাল টেনে লাল করে দেওয়া,, হিহিহি,,,আরো দৌড় দিল,,,আয়ানও পিছে পিছে দৌড় দিল,,কিছুক্ষন পর আরোকে ধরে ফেলল,,আয়ান বললো,,

আয়ান:আমি জানি আমার বিল্লিরাণি টা তার
ইচ্ছা নিশ্চয় পূরণ হবে,,,

আরো:ইনশাল্লাহ,, শুধু আপনি আমার পাশে থাকবেন তাহলেই হবে,,

আয়ান:আমি Always তোমার পাশে আছি,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আরোর চোখে পানি এসে গেল কথাটা মনে পরতেই,,আরো বললো,,

আরো:একদম ঠিক বলেছেন,, আমার,ইচ্ছে পূরণ হয়েছে,,কিন্তু,,কিন্তু আপনি আমার,পাশে নেই,,,এতো বড় ধোকা কিভাবে দিতে পারলেন আমায়,,,

হঠাৎ আরোর মনে হলো পিছনে কেউ দাড়িয়ে আছে,,,চশমা খুলে জল মুছে আবার চশমাটা চোখে দিয়ে পেছন ফিরলো হাসি মুখে,,,,আরো তাকিয়ে দেখে সানভি দাড়িয়ে আছে,,,

আরো:আব,,ভাইয়া তু,,

সানভি:চুপ,,তুই এতো বড়ো কথা লুকাতে পারলি আমার কাছে,,

আরো:শুন,,

সানভি:কি বলবি,,তুই না আমাকে নিজের ভাই মনে করিস,,তাহলে,,

আরো:আমার কারনে কেউ কষ্ট পাক তা আমি চায় না,,,হয়তো এটা আমার কপালে ছিল,,আর দেখ যা হবার তা তো হয়েছে,,বাদ দে এসব কথা,,,

সানভি:রুহ,,,,প্লিস বল কি হয়েছে,,,

আরো:,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

সানভি: আচ্ছা জোর করবো না, তুর যখন ইচ্ছা হবে তখন বলিস

আরো আর না পেরে সব বলে দিল,,সানভি বললো,,

সানভি :আয়ান কে তো আমি,,,,,

আরো:ভাই প্লিস বাদ দে,,ওনার প্রতিশোধ ওনি নিয়েছেন,,,

সানভি :কিন্তু তুই,,

আরো: ভাই প্লিস আমার একটু টায়ার্ড লাগছে,,একটু রেস্ট নি?

সানভি :আরে জিজ্ঞাস করার কি আছে পাগলি মেয়ে,,

আরো:ভাই কথাগুলা যাতে কেউ না যানে,,

সানভি :বোন কাউকে জানতে দিবো না,,তুই রেস্ট নে,,,,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আয়ান:What the hell you Asif,,এটা কি করেছো তুমি,,,,,(রেগে ফাইল ছুড়ে বললো)

আসিফ:স,,সরি স্যার,আ,,আমি বুঝতে পারি নি,,

আয়ান:কিসের সরি হ্যা??সামন্য একটা ফাইলে এতো ভুল কিভাবে হয়??

আসিফ:Sir I’m really sorry,,(মাতা,নিচু করে বললো)

আয়ান আরও কিছু বলতে চেয়েছিলো,,,হঠাৎ তার ফোনে কল আসায় আর বলতে পারেনি,,,

আয়ান:হুম বলো নিশম,,,
,,,,,,,,,,,,,,

আয়ান:What??
,,,,,,,,,,,,,,,,,

আয়ান:ওকে তাহলে টিকেট বুক করো,,,,আর সব ফইল একটু চেক করে নিও,,রাখছি বাই,,

আয়ান ফোন কেটে আসিফের দিকে তাকালো,,আসিফ ভয়ে নিচের দিকে তাকিয়ে রইলো,,,,,,,

আয়ান:আজকের মতো মাফ করলাম,, Next time এরকম ভুল করলে আর মাফ করবো না,, Mind it,,

আয়ান বেরিয়ে গেলো,,,,,,,বাড়িতে এতে কাপড়,গোছানো শুুরু করে দিলো,,,তার মম এসে বললো,,

রিমা চৌধুরি : কি হলো আয়ান কাপড় গোছাচ্ছিস যে,,,

আয়ান:মম বেরোতে হবে একটা কাজ পড়ে গেছে,,,

রিমা চৌধুরি হঠাৎ কান্না করে দিল,,আয়ান বললো,,

আয়ান:মম তুমি কাদঁছো কেন,,কয়েকদিনের তে ব্যাপার,,

রিমা:এজন্য কাদঁছি না আমি,,বাবা আর কতোদিন এভাবে কষ্ট পাবি,,সব বলে দিচ্ছিস না কেন ও কে,,,

আয়ানের চোখেও পানি আসলো,,,

আয়ান:মম বলার সুযোগ টা আর রাখলো কই,,,,,,আচ্ছা আমি যায়,,ফ্লাইর মিস হবে না হলে,,,ড্যাড কে বলে দিও,,,

রিমা চৌধুরি :আচ্ছা যা,,সাবধানে যাস,,,

আয়ান বেরিয়ে গলো,,,,,,,

In Canada,,,,

বিকালে সানভি আরোকে হসপিটাল থেকে ড্রপ করতে আসছিল,,,,,,আরো বললো,,

আরো:ভাই গাড়িতে যেতে ইচ্ছে করছে না,,

সানভি:পাগল হয়ে গিয়েছিস মনে হয়,,,,এতো পথ হেটে যাবি,,

আরো:হুম,প্লিস ভাই প্লিস(Innocent face করে বললো)

সানভিও হেসে বললো “আচ্ছা চল”

সানভি একটা দোকান থেকে দুটো পেপসির বোতল আনলো,,একটা আরোর হাতে দিলো,,,দুজন হাঠছে,,,কিছুদূর যাওয়ার পর সানভি বললো,,

সানভি:তুর মনে আছে আরো ছোটবেলায় একবার তুদের বাসায় গিয়েছিলাম,,,,রাস্তায় এরোকম দুজন পেপসি খেয়ে আমারটা ঠিকি ডাস্টবিন এ ফেলছিলাম,,কিন্তু তুই কি করেছিস মনে আছে,,

আরো:হো মনে আছে,,,,

সানভি:ওয়েট আমি বলি,,,পেপসি খেয়ে যেই কিক মারছিস বোতলটা সোজা এক টাকলুর মাথায় গিয়ে পরলো,,,,

দুজন হো হো করে হেসে দিল,,,,,আরো বললো,

আরো:আহারে বেচারা টাকু😂😂আরোর মনে পড়লো সেই দিনের,কথা যখন আয়ানের সাথে তার প্রথম দেখা হয়েছে,,ঠিক এভাবে,তবে কোনো বোতল না ফুটবল দিয়ে,,,আরোর,একটু মন খারাপ হলো,,সানভি বললো,,

সানভি:বইন আজ এমন কিছু করিস না,,

আরো শয়তানি হাসি দিয়ে পেপসির বোতল টা নিছে রাখলো,,চোখ বন্ধ করে দিলো এক কিক,,

সানভি:শেষ আজকে,,,,,

বোতলটা পরলো একটা ছেলের গায়ে,,ছেলেটা অবশ্য পিছন ফিরা ছিল,,,,যখন সামনে ফিরলো আরো চোখ বন্ধ করে ফেললো,,

চলবে!!!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here