Surprise Lover -Part 31+32

0
221

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:31+32

বোতলটা পরলো একটা ছেলের গায়ে,,ছেলেটা অবশ্য পিছন ফিরা ছিল,,,,যখন সামনে ফিরলো আরো চোখ বন্ধ করে ফেললো,,ছেলেটি সামনে থাকাতেই তার মুখে হাসি ফুটলো,,,,আরো চোখ খুলে তাকাতেই অবাক,,,আরো কোমরে হাত দিয়ে বললো,,,

আরো:আপনি?????

আয়াজ:হো আমি,, অন্য কাউকে আশা করছিলে বুঝি??

(যারা আয়ান ভেবেছিলেন তাদের জন্য এক বালতি সমবেধনা😉)

আরো:এই বেটা পেয়াজ তুই সব সময় আমার পিছু নিস কেন????

আয়াজ:বাহ একেবারে তুই তে চলে গেছো?Impressive,,,

আরো:আরে রাখেন মিয়া আপনার Impressive,,,বোতল টা,গায়ে না পরে যদি মাথার,উপর পরতো তাহলে আমি কি যে খুশি হতাম,,,,

আয়াজ আরোর কথা শুনে হাসবে না কাদঁবে বুঝতে পারছে না,,,

আরো:দাড়া তুকে দেখাচ্ছি মজা আমার,সাথে কথা বলবি না???

আরো অনেক খুজে একটা লাটি আনলো,,,আয়াজ তা,দেখে দিলো দৌড়,,,,,আর মনে মনে বললো,,”তাওবা আসতাগফিরুল্লাহ,, আর জীবনেও এই মেয়ের সামনে আসবো না,,,কখন না জানি আমাকে মেরে দেই,,

সানভি:আমি তো অবাক,,,গুন্ডি একটা,,,,,

আরো:মার খেতে চাস???

সানভি :না রে বইন চল,,,আমি Texi ডাকি,,,,

এদিকে আয়ান গাড়ি নিয়ে মিটিং এর উদ্দেশ্যে রওনা দিলে হঠাৎ আরোকে দেখতে পাই,,,,,আয়ান তাড়াতাড়ি গাড়ি পার্ক করে,,,আর আরোর দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,,,,,,আরো কোমরে হাত দিয়ে আয়াজের সাথে ঝগরা করার সময় আয়ান ফিক করে হেসে দেয়,,কতোদিন দিন পর মনে হয় হাসলো,,,,,,,আয়ান ভাবলো আরোর সাথে কথা বলবে,,তাই সে যেতেই সানভি আরোকে গাড়িতে নিয়ে গেল,,,,,,,আয়ান বললো,,,

আয়ান:তার মানে আরো এখানে আছে,,,,সাতটা বছর আমার থেকে দূরে থেকেছো,,আর না,,আমি আসছি মিস কিউটিপাই,,,,,,,

আয়ান আবার গাড়ি নিয়ে মিটিং এ চলে গেল,,,,,,

(আয়ান কানাডায় আসে একটা মিটিং এর উদ্দেশ্যে,,, এই মিটিং টা না করলে কোম্পানির অনেক বড়ো লস হতে পারে,,তাই না চায়তেও আসতে হলো)

আয়ান মিটিং শেষ করে হোটেলে চলে এলো,,,,বিছানায় আধ শোয়া হয়ে ভাবতে থাকে আরোর কথা,,কিভাবে তাকে সব সত্যিটা বলবে,,আরো কি বিশ্বাস করবে???পরোক্ষণে আবার ভাবে”না,না যেভাবে হোক আরোর অভিমান ভাঙতে হবে,”

পরদিন আয়ান গাড়ি নিয়ে সে জায়গায়টাই আসলো,,,কিন্তু আরোকে দেখতে পাচ্ছে না,,,,দুই তিনদিন এভাবে এসে দাড়িয়ে তাকে বাট আরোর খোজ পায়না,,,,,

আরোর মোবাইল ফোন বেজে উঠে,,,

আরো:আরে সাজি,,,কেমন আছিস?

সাজি:এইতো ভালো,,তুই,,

আরো:হুম ভালো,,,

সাজি:তুকে একটা কথা বলার ছিল,,

আরো:শুনবো বাট তুই তো জানতুর মতো করিস না,,,,,

সাজি:জান্নাত আমাকে বলেছে,,আগে পুরো কথাটা তো শুন তারপর না হয়,,

আরো:বেস সাজি অনেক হয়েছে,,প্লিস Off যা আমি শুনতে চাচ্ছি না ওনার কথা বুঝতে কেন পারছিস না তুরা,,

সাজি:ওকে শুনিসনা,,,আরো না শুনে অনেক বড়ো ভূল করছিস তুই,,,,সাজি কল রেখে দিল,,,,,,

আরো:কি এমন কথা,,ধুর ভালো লাগে না,,,আরো হসপিটাল চলে গেল,,,,হঠাৎ নার্স এসে বললো,,,

-আপনাকে এখনি ২০৬ নাম্বার কেবিনে যেতে হবে,,

আরো:কেন??

-ডক্টর তানভির বলেছেন ২০৬ নাম্বার পেশেন্টের অবস্তা বেশি ভালো না,,,,

আরো:ওকে ওকে,,,,,

আরো দৌড়ে গেল,,,পেশেন্টের অবস্তা সত্যি Critical,, মাথায় বাজে ভাবে আঘাত পেয়েছে,,,,,,,,আরো কেবিনে ডুকার সময় বাহিরে খেয়াল করেনি,,আরো অপারেশন করতে গেল,,, অপারেশন সাকসেসফুল করার পর কেবিন থেকে বের হয়ে বলে,,,,,

আরো:পেশেন্টের বাড়ির কেউ নেই??

হঠাৎ কোথা থেকে আয়ান এসে বললো,

আয়ান:ওনার,বাড়ির লোকদের আমি খবর দিয়েছি,,,,

আরোর কন্ঠটা খুব চেনা মনে হচ্ছে,,আরো সামনে থাকাতেই অবাক হয়ে যায়,,,,,,,,কতো বছর পর আয়ানকে এভাবে দেখলো,,,চেহারাটা কেমন যানি পাল্টে গিয়েছে,,,,,মুখে খোঁচা খোঁচা দাড়ি,,আগে এমনটা ছিলো না,,,

আয়ানের ও একি,,,,,আরোকে খুব কাছ থেকে আজ দেখছে,,,,আরো চশমা দেওয়ায় তাকে আরও কিউট লাগছে,,,,

আরে নিজেকে সামলিয়ে বললো,,

আরো:মিস্টার,,,,Whatever,,, আ,,আপনি ও,,নার কি হন?(কথা আসছে না,, বার,বার আটকে যাচ্ছে)

আয়ান অবাক হলো আরোর কথায়,,,,আরো একটু রেগে বললো,,

আরো:কি হলো চুপ করে আছেন কেন,,,,,তাড়াতাড়ি বলুন,,,

আয়ান:আমি ওনার কেউ না,,রাস্তায় Accident হয়ে পড়ে ছিল, আ,,আমি নিয়ে এসেছি,,,

আরো:ও,,,ওনার বাড়ির লোক কে যথা,সম্ভব খবর পৌছে দিবেন,,,

আরো দ্রুত চলে গেল,,,আর যদি একটু থাকতো নিশ্চিত তার চোখের পানি সবার নজরে আসতো,,,,আয়ানের অনেক ইচ্ছে হয়েছিলো আরোকে একবার জড়িয়ে ধরার,,কিন্তু পরিস্থিতি এমন,,,,

আয়ান একটা নার্সের সাহায্য নিয়ে আরোর কেবিনে আসলো,,,,,

আরো চোখ থেকে তাকালেই দেখে আয়ান দাড়িয়ে আছে,,,আয়ানের চোখ ছলছল করছে,,,আয়ান বললো,,,

আয়ান:আ,,আরো,,,

আরো:My name is not Aro,,,,My name is Arohi,,,,,

আয়ান:আরো তুমি এভাবে কেন,,,

আরো:আপনি এখানে কেন এসেছেন,,,,

আয়ান:আরো প্লিস একবার আমার কথা শুন,,

আরো:,আপনার কথা কেন শুনবো আমি,,

আয়ান:আ,আরো প্লিস,,

আরো:Get out,,

আয়ান:আরো,,,

আরো:বললাম তো বেরিয়ে যান,,,,

আয়ান আর কিছু বলতে পারলো না,,চোখ থেকে পানি গড়িয়ে পরছে তার,,,,আয়ান চলে যাওয়ার পর আরো কান্নায় ভেঙে পরে,,,টেবিলে থাকা সব ফাইল গুলো নিছে ফেলে দেয়,,আর কান্না করতে করতে বললো,,

আরো:কেন আসলেন আবার,,কেন??এতো বছর নিজেকে একটু হলেও শক্ত করেছি,,,আর আপনি,,,,,,না আমাকে ভেঙে পরলে চলবে না,,,

আয়ান সোজা হোটেলে চলে আসে,,,,আবির আর জিদান কে সব বললো,,,,তার,মম কে খবর দিলো যে আরোর ঠিকানা পেয়েছে,,,

রিমা চৌধুরি :বাবা আর হাত ছাড়া করিস না,,এটা তুর শেষ সুযোগ,,আরোকে গিয়ে বলে দে,,

আয়ান :মম ও আমার কোনো কথাই শুনছে না,,আমি কি করবো,,,

রিমা চৌধুরি: দেখ আরো যেহেতু নিজের চোখে সব দেখেছে এতো সহজে মানবে না,,একটু সময় লাগবে,,এই সময়ের মধ্যে তুকে মানাতে হবে,,,

আয়ান:ইনশাল্লাহ মম আমি পারবো,,,,

রিমা চৌধুরি চোখের জল মুছে কল রেখে দিলেন,,,,,আর আয়ান জানালার দিকে তাকিয়ে আরোর কথা ভাবতে থাকে,,,,

আরো সানভির সাথে বাসায় চলে আসলো,,সারা রাস্তায় আরো চুপ করে ছিল,,,আয়ানকে এভাবে দেখে আরো অনেক Shocked,, আরোর খুব খারাপ লেগেছিল যখন ও আয়ানের সাথে এভাবে কথা বলছিলো,,কিন্তু এরকম ব্যবহার,না করে ও উপায় নেই,,কারণ আয়ান যা করেছে সে এটারই যোগ্য,,,,,,

রাতে আরো খেতে চায়ছিলো না,,,সানভি খাবার নিয়ে আরোর রুমে গেল,,আরোর মাথায় হাত ভুলিয়ে দিয়ে জিজ্ঞাস করলো,,

সানভি:রুহ বোন কি হয়েছে তুর,,

আরো সানভিকে জড়িয়ে ধরে কেদেঁ দিলো,,আর ঘটে যাওয়া সব ঘটনা খুলে বললো,,,

সানভি:সাজি আর জান্নাত কি বলতে চায়ছে সেটা শুনা তুর উচিৎ ছিলো,,,,

আরো:ওরা আর কি বলবে,,

সানভি:আমার মনে হয় বড়ো একটা ষড়যন্ত্র হয়েছে,,,

আরো:মানে???

সানভি:আচ্ছা যেদিন ও তুকে রায়ার সামনে নিয়ে গিয়েছিলো,,তুর কি একবারের জন্যও মনে হয়েছে আয়ান রায়াকে ভালোবাসে??তুই কি ওর চোখে রায়ার জন্য ভালোবাসা দেখতে পেয়েছিস??

আরো ভেবে দেখলো সানভি তো ঠিকই বলেচে,,

আরো:মানছি,,কিন্তু ওনি,,,,,,ওনি বলেছে রায়াকে বিয়ে করবে,,রায়াকে ভালোবাসে,,এখানে ষড়যন্ত্র কোথায় তুই বল,,

সানভি:আচ্ছা বাদ দে,,হা কর,আমি খাইয়ে দি,,

সানভি জোর করে আরোকে খাইয়ে দিল,,,

পরেরদিন আয়ান আবার ও আসে আরোর কেবিনে,,,,

আরো: আপনি আবার ও আসছেন??আপনার প্রবলেম টা কি একটু বলবেন??

আয়ান:আরো প্লিস একবার আমাকে বলার সুযোগ দাও,,,,

আরো:কি বলবেন হ্যা?আর কি রকম প্রতিশোধ নেওয়া বাকি আছে??

আয়ান:আরো,,

আরো:আপনি যাবেন??নাকি আমি চলে যাবো,,

আয়ান :না আমি যাচ্ছি,,,,

আয়ান চেখের জল মুছে চলে গেল,,আজও আরো কান্নায় ভেঙে পরলো,,,,,

কিছুদিন পর,,

আরে সানভির জন্য ওয়েট করছিলো,,এমন সময় আয়ান আরোকে জোর করে ওর গাড়িতে বসিয়ে দেয়,,,

আরো:How dare you mister Ayan,,সাহস কি করে হয় আমাকে জোর করে গাড়িতে উঠানোর,,

আয়ান:তুমি আমার কোনো কথায় শুনছো না তাই বাধ্য হয়ে এটা করতে হলো,,,

আরো:আমি আপনার কোনো private property না,,,,আপনার যখন ইচ্ছা আমায় কাছে টানবেন আবার যখন ইচ্ছে ছুড়ে ফেলে দিবেন,কি মনে করেছেন নিজেকে হ্যা??,,

আয়ান চুপ করে ড্রাইভ করছে,,, কিছুক্ষন পর একটা ব্রিজের উপর আসলো,,,,আয়ান গাড়ি থেকে নামলো,,আরোও নামলো,,

চলবে!!!
😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:32

আয়ান চুপ করে ড্রাইভ করছে,,, কিছুক্ষন পর একটা ব্রিজের উপর আসলো,,,,আয়ান গাড়ি থেকে নামলো,,আরোও নামলো,,

আরো:এবার শুরু করেন আপনার ড্রামা,,

আয়ান:আরো এটা ড্রামা না,,এরকম পাল্টে গিয়েছো কেন তুমি,,

আরো:আপনি পাল্টাতে বাধ্য করেছেন,,আপনি,,,

আয়ান কখনো আরোর এই রুপ দেখেনি,,,frist দেখলো,,রাগে আরোর মুখ লাল হয়ে গেছে,,

আরো: কতো কষ্ট পেয়েছি জানেন আপনি,,,অবশ্য আপনি জানবেন কি করে,,রায়াকে বিয়ে করে এখন সুখী আছেন নিশ্চয়,, নাকি রায়া আপনাকে ছেড়ে চলে গিয়েছে,,,,কোনটা???

কথা গুলা আায়নের বুকে এসে লাগলো,,,,

আয়ান:আরো একবার আমাকে বলতে দাও প্লিস,

আরো চুপ করে আছে,,,

আয়ান: আরো আমি তোমাকে সত্যি ভালোবাসি,,, ওইদিন আমি যা করেছি সব রায়ার কথায় করেছি বিশ্বাস করো,,,,,রায়া,,

আরো:বেস অনেক হয়েছে আপনার নাটক,,,,,আপনার জন্য এই সাত বছর বাবা মার থেকে দূরে থেকেছি,,শুধু আপনার স্মৃতি ভুলার জন্য,,,,কখনো ভেবেছেন একবার,, তখন আমার ঠিক কতোটা কষ্ট হয়েছে,,আপনার জন্য সারপ্রাইজ নাম জিনিসটা আমার জীবন থেকে বিদায় দিয়েছি,,সাত বছর নিজের বার্থডে Celebrate করিনি বা কাউকে করতে দেয়নি,,যতোবার এই বার্থডে এসেছে ততোবার আপনার দেওয়া সেই সারপ্রাইজ টার কথা চোখে ভেসেছে,,

আয়ান নিচের দিকে তাকিয়ে আছে আর ভাবছে সত্যি ওর জন্য কতো কষ্ট পেয়েছে আরো,,কিন্তু আয়ানের ও পরিস্থিতির স্বীকার হয়ে এটা করতে হয়েছে,,

আরো:কেন করলেন আয়ান,, কেন?একবার ও আপনার বিবেকে বাধলোনা এটা করতে(কান্না করতে করতে বললো)

আয়ান তার দুইহাত আরোর গালে রেখে বললো,,,

আয়ান:আরো আমাকে একবার সুযোগ দাও প্লিস,,,,

আরো দুই পা পিছিয়ে এসে বললো,,

আরো:কখনো না,,,আপনি আর আমার চোখের সামনে আসবেননা,,,,,ঘৃণা করি আমি আপনাকে,,ঘৃণা,,,,

আর চলে গেল,,আয়ান ব্রিজে ধপ করে বসে চিৎকার দিয়ে পাগলের মতো কান্না করছে,,,

আরো চলে গেল,,,, রুমে এসে কান্না করতে থাকে,,,,,সাজির কল আসায় ধরলো,,

সাজি:প্লিস আরো লাইন কাটিস না,,একবার শুন,,,

আরো:হুম বল,,,

সাজি:আয়ান স্যারের কোনো দোষ নেই আরো,,শুধু শুধু ওনাকে কষ্ট দিচ্ছিস,,,

আরো:মানে,,,তুই কিভাবে জানিস,,,

সাজি:আয়ান স্যার জিদান ভাইয়াকে বলেছে,,আর ওনি আমাদের বলেছে,,
সেদিন স্যার তুকে আসতে বলছিল তুকে বিয়ের Proposal দিতে কিন্তু,,,

আরো:কিন্তু কি,,,

সাজি:সেদিন,,,,,

#Flash_Back,,

আয়ান তার মমকে বললো,,

আয়ান:মম একটা কথা বলার ছিলো,,

রিমা চৌধুরি:জানি আমি তুই কি বলবি,,,মেয়েটার ছবি আমি তুর রুমে দেখেছিলাম,,,

আয়ান:মম আমি ও কে বিয়ে করতে চায়,,

রিমা চৌধুরি :নো প্রবলেম বাবা আমি রাজি,,মেয়েটাকে আমার অনেক পছন্দ হয়েছে,,,

আয়ান:ড্যাড?

রিমা চৌধুরি :ওনাকে আমি মানিয়ে নিবো,,,

আয়ান:Thanks mom,,আমি যাচ্ছি,,,,,

রিমা চৌধুরি:হুম যা,,,,,

আয়ান গাড়িতে বসলো,,,পকেট থেকে একটা রিং এর বাক্স নিয়ে বললো ,,,,

আয়ান:আরো আজ তোমাকে Best surprise দিবো,,প্লানিং শেষ,,শুধু সময়ের অপেক্ষা,,,,

আয়ান সেই জায়গায় পৌছে দেখলো রায়া আগে থেকেই সেই জায়গায় দাড়িয়ে আছে,,,

আয়ান:রায়া তুমি?

রায়া:হ্যা আমি,,,তোমাকে আমার কিছু কথা বলার আছে,

আয়ান:এখনি বলবে???

রায়া:হুম,,,,,,, আয়ান I love you,,

আয়ান:What do mean,,,

রায়া:আমি সত্যি বলছি আয়ান,,, সেই America থেকে,,যখন আমি frist দেখছিলাম,,,,

আয়ান:রায়া এসব কি বলছো,,আমি তোমাকে একজন ভালো Friend ভেবেছি,,আর সবচেয়ে বড়ো কথা আমি আরোকে ভালোবাসি,,,আর আমি ওকে,,

রায়া:জানি বিয়ের প্রপোজাল দিবা তাই তো??

আয়ান:তুমি কিভাবে জানো??

রায়া:বিকজ আমি সব শুনেছি,,,,,

আয়ান:ওও জানলে ভালো,,এখন তুমি যাও,,,আরো আসবে,,,

রায়া একটা শয়তানি হাসি দিয়ে বললো,,,

রায়া:তুমি কি ভেবেছো,, আমি তোমাকে এমনি এমনি ছেড়ে দিবো,,ছোটবেলা থেকে আজ অব্দি যা চেয়েছি সব পেয়েছি,,,,,এখন আমি তোমাকে চায়,, সো,,,

আয়ান:সাট আপ,,,তুমি আমাকে কখনো পাবে না,,,,জানি তুমি আমাকে পাওয়ার জন্য অনেক দূর যাবে,,,আমাকে মেরে ফেললেও আমি তোমার হবো না,,,,,মাইন্ড ইট,,

রায়া:ওহহো কি ভেবেছো আমি তোমার ক্ষতি করবো??No baby,,, আমি তোমাকে ভালোবাসি,, সো তুমার ক্ষতি কিভাবে করি বলো,,,,

আয়ান:মানে,,,,,

রায়া:তুমি যদি আমার কথা না শুনো তাহলে তোমার আরো সোজা উপরে,,,,,

আয়ান:What,,,,,রায়া Are you made??পাগল নাকি তুৃমি হ্যা?কি সব বলছো,,

রায়া:হ্যা হ্যা পাগল আমি,,তোমাকে ভালোবেসে আমি পাগল হয়েছি,,,,,,,রায়া ওর মোবাইল বের করে একটা Vedio দেখালো,,,,

Vedio টাতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে আরো রিকশায়,,আর তার সামনে বড়ো বড়ো দুইটা ট্রাক,,,,,,

রায়া:তুমি যদি আমার কথা না শুনো তাহলে বুঝতেই পারছো কি হবে,,,,ট্রাক দুটো,,,

আয়ান চোখে পানি এসে গেলো,,,,,,

আয়ান:রায়া প্লিস এমন টা করো না,,,কি লাভ বলো এসব করে,,,আমি তোমায় কোনো দিন ভালোবাসবো না,,,

রায়া:হবে না তোমার ভালোবাসতে,,আমি আমারটা আদায় করে নিবো,,, জাস্ট আরোর সামনে অভিনয় করবে তুমি আমাকে এই ফুলের অর্কিড টা দিয়ে প্রপোজ করে,,,,

আয়ান:অসম্ভব আমি এটা পারবো না,,,প্রপোজ শুধু আমি আরোকে করবো,,

রায়া:তাহলে কল করে বলি যে ট্রাক দুইটা,,,

আয়ান:না না রায়া এমন করোনা,,আ,,,আ,,আমি রা,,রাজি (চোখ বন্ধ করে বলে দিলো)

রায়া:এই তো গুড,,,বেশি চালাকি করার ট্রাই করবানা,,,আরোর পিছনে দুইজন লোক আছে,,যদিও ও কে এটা বোঝানোর ট্রাই করো যে তুমি অভিনয় করছো তাহলে,, আমি জাস্ট একটা মেসেজ দিবো সাথে সাথে আরোকে পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হবে,,,

আয়ান স্তব্ধ হয়ে আছে,,রায়ার কথা শুনে,,কখনো ভাবেনি এমনটা হবে,,চোখের জল মুছে বললো,,

আয়ান:দেখো তুমি আরোর কোনো ক্ষতি করবানা,,তুমি যা বলবা আমি তাই করবো,,,,

রায়া:আয়ান আরো আসছে,,প্রপোজ মি Frist,,,

আয়ান অনেক কষ্টে রায়াকে আরোর সামনে প্রপোজ করলো ,,,,,, এমন সময় আরো দেখলো,,,,,,এরপর তো যা হবার হয়ে গেছে,,,আরো যাওয়ার পর আয়ান নিছে বসে চিৎকার দিয়ে কান্না করতে লাগলো,,,

আয়ান:রায়া তুমি অনেক বড়ো ভূল করেছো,,আমার চোখের সামনে থেকে যাও তুমি,,,,,

রায়া:আয়ান,,

আয়ান:রায়া,,,,যাও,,,

রায়া চলে গেল,,সে ও নিজের বাড়িতে এসে জিনিসপত্র ভাঙচুর করতে লাগলো,,, সবাই অনেক কষ্টে থামায়,,,,

রাত ২:১৫ আয়ান এখনো সেই জায়গায় বসে কান্না করছে,,আরো তাকে ভূল বুঝলো,,হয়তো কোনোদিন ওকে ক্ষমা করতে পারবে না,,,,

আয়ান গাড়ি নিয়ে বাড়িতে চলে আসলো,,,,আয়ানকে এভাবে দেখে তার মম বললো,,

রিমা চৌধুরি :কি হয়েছে বাবা তুর,,,,

আয়ান চোখ দিয়ে এখনো পানি পরছে,,,রিমা চৌধুরি আয়ানকে নিয়ে সোফায় বসালো,,,আয়ান রিমা চৌধুরির কোলে মাথা রাখলো,,,

রিমা:আয়ান বল না কি হয়েছে,,আরো রাজি হয়েছে তো???

আয়ান এবার শব্দ কান্না করে দিল,,,,,,আর বললো,,

আয়ান:সব শেষ মম সব শেষ,,,,,আয়ান ঘটে যাওয়া ঘটনাটা বললো,,,,,,

রিমা চৌধুরি :তুই কাল গিয়ে আরোকে সব বলে দিস,,,

আয়ান:মম রায়া ওর ক্ষতি করে ফেলবে,,আমি চায়না এটা,,,,

আয়ান ওর রুমে চলে যায়,,রিমা চৌধুরির ও অনেক খারাপ লাগে,,,,,আয়ান নিজের রুমে এসে দেওয়ালের আরোর ছবিটার দিকে তাকিয়ে আছে,,,,,যখন আরো টুনুমুনু কে কোলে নিয়েছিলো আর চোখ দুইটা খিঁচে বন্ধ করে রেখেছে,,আয়ান সেই ছবিটা ফ্রেমে বন্ধি করে তার রুমের দেওয়ালে ঝুলিয়ে রাখে,,,আয়ান ছবিটার দিকে তাকিয়ে কান্না করতে লাগলো,,,,,,,তারপর ছবিটা বুকে ঝড়িয়ে কখন ঘুমিয়ে যায় টেরও পায়নি,,,

সকালে সে অনুভব করে তার,মাথাটা,ভারী হয়ে আছে,,,,ওঠে দাড়াবার শক্তিটুকু ও নেই,,,

আয়ান ভীঘণ অসুস্থ হয়ে যায় যার ফলে কলেজ আসতে পারেনি,,,,,২দিন পর যখন কলেজ গিশেছে আরোকে অনেক খুঁজেছে কিন্তু পায়নি,,,,,,ওইদিন যখন রায়া আবিরদের সামনে আয়ানকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিল ওইদিন রায়া আয়ানকে নিয়ে একটা জায়গায় আসে,,রায়া বললো,,,

রায়া:আয়ান বিলিভ মি অনেক ভালোবাসি তোমাকে,,,,,,এই জন্য এটা করতে বাধ্য হয়েছি,,,

আয়ান:আমি শুধু আরো কে ভালোবাসি,, ও আমার,জীবনে প্রথম আর শেষ ভালোবাসা,,,,

রায়া:বুঝিনা কি আছে ওর মধ্যে,,তুমি আমাকে কেন ভালোবাসো না আয়ান,,,,আচ্ছা তুমি আমার সাথে কয়েক দিন টাইম স্পেন্ড করে, তোমার ফিলিংস আসবে,,

আয়ান:কখনো না,,,তোমার সাথে পুরো জীবন খাটালেও আমাী ফিলিংস শুধু আরো কে নিয়ে,, ,,, যতই চেষ্টা করে না কেন,,

এবার রায়ার চোখেও পানি এসে গেল,,যতই হোক সে আয়ানকে ভালোবাসে,,, সে এখন বুঝতে পারছে আয়ানকে কখনো সে পাবেনা,,,

রায়া:ওকে ফাইন,,,ভালো থেকো,,,,আমি আর তোমাদের মাঝে আসবো না,,,কখনো আসবো মা,,আর চিন্তা করো না আমি আরের কোনো ক্ষতি করবো না,,আমি America চলে যাবো,,

আয়ান:Thanks,,,আয়ান চলে গেল,,,,রায়া ওইখানে বসে কাদঁতে লাগলো,, তারপরের দিন সে America চলে যায়,,,,এর পরে আয়ান আরোকে অনেক খোজার ট্রাই করে,,কিন্তু পায়নি,,সাজি অন্য কলেজে ভর্তি হয়,,, সে হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছে, কারণ ওই কেলেজে আবির আর আয়ানের মুখোমুখি হতে চায় না সাজি,,,,,,

#Present,

আরো:এতে কিছু হয়ে গেল,,,,,,

সাজি:ওনি সত্যিই তোকে অনেক ভালোবাসে আরো,,,,,

আরো:তুই আবিরকে ভালোবাসিস না??

সাজি:বাদদে এসব,,,আয়ানের কাছে যা,, না হলে অনেক দেরী হয়ে যাবে,,,,

আরো কল কেটে গাড়ি নিয়ে সোজা সেই জায়গায় চলে গেল,,কিন্তু কোথাও পেলোনা,,

হঠাৎ আরোর মোবাইলে কল আসে,,,কল রিসিভ করে কথা বলতেই আরোর মোবাইল হাত থেকে পড়ে যায়,,,,আরো তাড়াতাড়ি গাড়ি নিয়ে হসপিটাল চলে যায়,,,,,

চলবে!!!!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here