Surprise Lover -Part 33(last)

0
303

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:33(Last part)

আরো কান্নার জন্য কিছু দেখতে পাচ্ছে না,,হসপিটাল এসে,আরো একটা নার্সকে দেখলো,, ,,তাকে বললো,,,

আরো: নার্স এই মূহুর্তে যে Accident হয়েছে তাকে কোন কেবিনে নেওয়া হয়েছে,,

নার্স:ওনাকে ২০৭ নাম্বারে কেবিনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে,,আপনি কাইন্ডলি যান,,

আরো দৌড়ে গেল,,,,,,আয়ানকে OT তে নিচ্ছে,,,রক্তে তার শার্ট ভিজে গিয়েছে,,,হ্যা Accident টা আয়নের হয়েছে,,,,,আরো যখন আয়ানকে রাগের মাথায় বলছিল সে আর আয়ানের মুখ দেখতে চায়না,,তখন আয়ান হাটতে হাটতে রাস্তার মধ্যে চলে আসে,,,,ফলে একটা বড়ো ট্রাক ব্রেক করতে পারেনি,,,আর আয়ানের Accident হয়,,,,,,,,,

ডক্টর তানভির:মিস আরোহী,, ওনার অপারেশন করতে হবে,,, আমার মনে হয় আপনি করলে ভালো হবে,,

আরে মনে মনে বললো,,,”নিজের ভালোবাসার মানুষটাকে নিজের হাতে কিভাবে অপারেশন করবো”,,,

আরো:আ,আ,,না না,,ডক্টর তানভির আপনি করেন,,

ডক্টর তানভির :Are you sure??

আরে:Yeah,,,,

ডক্টর তানভির:Ok,,

ডক্টর তানভির OT তে চলে গেলেন,,প্রায়া আধ ঘন্টা পর এসে বললেন,,,

ডক্টর তানভির :আরোহী ওনার অবস্তা খুব খারাপ,,ওনার Emergency Blood লাগবে,,,২০ মিনিটের মধ্যে রক্তের ব্যবস্তা করুন,,,

আরোর মাথায় কাজ করছেনা কি করবে,,,আয়ানের Blood Group O+,,আর আরোর A+,,,আরো কি করবে ভেবে পাচ্ছে না,,আবার মনে হলো সানভির রক্তের গ্রুপ ও O+,,তাই সে দেরী না করে সানভিকে কল দিল,,

কান্নায় তার কথা আটকে যাচ্ছে,,সানভি আরোর গলা শুনে বুঝতে পারছে আরো কান্না করছে,,,

সানভি:রুহ তুই কান্না করছিস কেন???

আরো:প্লিস ভাইয়া তাড়াতাড় হসপিটালে চলে আই প্লিস,,,,

সানভি আর দেরী না করে চলে এলো,,,আরো সানভিকে জরিয়ে ধরে কান্না করে দিলো,,তারপর আয়ানের Accident এর কথা বললো,,,,,সানভিও Blood দিতে গেল,,,,,,ব্লাড দিয়ে আসার পর দুজনে বাহিরে দাড়িয়ে আছে,,, আরো একবার,এদিক যাচ্ছে তো একবার ওদিক যাচ্ছে,,আর কান্না করছে,,

প্রায় ২ ঘন্টা পর ডক্টর তানভির আসে,,,,আর দৌড়ে গিয়ে জিজ্ঞেস করলো,,,,

আরো:ডক্টর আয়ান কেমন আছে,,,

ডক্টর তানভির:আমি যথা সম্ভব ট্রাই করেছি,,,,যদি ২৪ ঘন্টার মধ্যে যদি ওনার জ্ঞান না আসে তাহলে পেশেন্ট কোমায় চলে যাবে,,আর ফিরে না আসতেও পারে,,,Excuse me,,ডক্টর তানভির চলে গেল,,,,

আরো ধপ করে নিচে বসে গেল,,,,, আর নিজে নিজে বলতে লাগলো,,

আরো:সব আমার জন্য হয়েছে,,,একবার,যদি আয়ানের কথা শুনতাম তাহলে এমন হতো না,,,,,,,আল্লাহ প্লিস ও কে আমার,কাছে ফিরিয়ে দাও,,,,

সানভি:নিজেকে শক্ত কর রুহ,,চল আয়ানকে দেখে আসি,,,

আরো:আমার নিজেকে অপরাধী মনে হচ্ছে,,আমি বুঝতে পারিনি এমন হবে,,সাত বছর পর এসে আবার,,,,,,

আরো আর বলতে পারলো না কান্নায় ভেঙে পরলো,,,,,,

সানভি আরোকে নিয়ে গেলো আয়ানের কেবিনে,,,,, আয়ান বেডে শুয়ে আছে,,,কি নিষ্পাপ লাগছে তাকে,,,,মনে হয় কতো বছর পর শান্তিতে ঘুমাচ্ছে,,,,,,,,

সানভি:রুহ Exactly কি হয়েছে বলতো,,,

আরো চোখের পানি মুছে সানভি সব বললো,,,

সানভি:দেখেছিস,,তুকে আমি আগেই বলেছিলাম,,,

আরো:কি করবো বল,,,রাগে আমার মাথা কাজ করছিলো না,,কি বলতে কি বলছে আমি নিজেও জানিনা,,,,

সানভি:কি করবি,,আল্লাহ কে ডাক,,,

সানভি বাহিরে চলে গেল,,,,,আরো এক হাত আয়ানের হাতে রাখে,,,,আয়ানের হাতে হাত রাখতে সে আবার কান্না করে দেই,,

২২ ঘন্টা ৩৫ মিনিট পর আয়ানের জ্ঞান আসে,,, হালকা চোখ খোলার চেষ্টা করলো,,আরো আয়ানের বেডের পাশে মাথা রাখার ফলে কখন ঘুমিয়ে গেছে টেরই পায়নি,,,,,

আয়ান দেখলো আরো তার বেডের পাশে ঘুমিয়ে আছে,,আয়ানের নড়বার শক্তিটুকু ও নেই,,,,,,,,আয়ানের হাত নড়ে ওঠাই আরোর ঘুম ভেঙে যায়,,,,,আরো তাকিয়ে দেখে জ্ঞান ফিরেছে,,,,আরোর খুশি দেখে কে,,,আরো তাড়াতাড়ি ডক্টর তানভির কে ডাকে,,,,,ডক্টর এসে বললো,,,,ডক্টর এসে আয়ানকে চেক আপ করলো,,, আয়ান এখন বিপদ মুক্ত,,,,, আরো আয়ানের সব খেয়াল রাখছে,,,

প্রায় এক সপ্তাহ পর আয়ান সুস্থ হয়,,তবে ঠিকভাবে হাঠতে পারে না,,আরো আয়ানকে তার ফুফির বাসায় নিয়ে আসে,,,,,,

কয়েকদিন পর আরো আয়ানকে বাসার ছাদেঁ নিয়ে যায়,,,আরো আয়ানের পাশে দাড়িয়ে আছে,,দুজন চুপচাপ,,,,,, আয়ান নিরবতা ভেঙে বললো,,,

আয়ান:আরো I Am so Sorry,,, please আমাকে মাফ করে দাও,,

আরো:না মাফ আমার চাওয়া উচিৎ না বুঝে অনেক কিছুই বলেছি আপনাকে,,,

আয়ান:তোমার জায়গায় থাকলে হয়তো আমিও একই কাজ করতাম,,,

আরো আর কিছু বললো না,,,সামনে তাকিয়ে আছে,,,,,,আয়ান বললো,,

আয়ান:আচ্ছা আরো জান্নাতের তো বিয়ে হয়ে গেছে,,,বাট সাজি কোথায়,,,

আরো:আমি চলে আসার পর সাজি আমাদের কলেজ থেকে অন্য কলেজে চলে যায়,,ওখানে ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছে,,,,ছুটিতে মাঝে মাঝে বাড়ি আসে,,কেন বলেনতো??

আয়ান:আরো জানো,,,আবির সাজিকে কতোটা ভালোবাসে,,,,,,,প্রতিদিন কলেজে আসতো একটাবার সাজিকে দেখার জন্য,,,আমি তোমার,সাথে যা করেছি ওইটার পর সাজি আবিরকে Ignore করতো,,,,এরপর তো সাজিকে আর দেখায় যায় নি,,,,,আবির আমাদেরকে প্রায় ওর কথা বলতো,,জিদানের কাছেও জিজ্ঞাস করেছি,কিন্তু ও জানে না,,জানবে কি করে,,তোমরা তো তিনজন এমন ফ্রেন্ড মরে গেলেও প্রমিস ব্রেক করবে না,,,

আরো হেসে বললো,,”আমরা এমনি”

আয়ান:আবির প্রায় কাদঁতো সাজির জন্য,,ও অনেক খোজার try করেছে বাট কোথাও
পায়নি,,,

আরো:আসলে সাজিও মনে হয় আবিরকে ভালোবাসে,,,একটা কাজ করেন,,,আমি আপনাকে সাজির নতুন নামবার আর হোস্টেলের Address দিচ্ছি,,আপনি আবিরকে বলে দিয়েন,,এরপর যা করার ওনি করবে,,,

আয়ান: Good Idea,,, By the way,,তোমার নতুন নামবার দিবে না??

আরো হেসে দিয়ে দিলো,,,,,,,আয়ান আর আরো ছাদঁ থেকে নেমে যায়,,,আরো রাতে সাজিকে কল করে সব বলে দেয়,,আরো ও এখন Sure হয়েছে সাজি আবিরকে ভালোবাসে,,,,,

আবির সাজিকে একেবারে বিয়ের প্রপোজাল দেয়,,সাজি আর বারণ করতে পারেনি,,,সে রাজি হয়ে যায়,,

আরো আয়ান জান্নাত জিদান সবাই অনেক খুশি,,,,আয়ান সুস্থ হওয়ায় সে হোটেলে চলে যায়,,সবাই অনেক বারণ করে যাতে না যায়,, কিন্তু আয়ান শুনেনি,,,,

কিছুদিন পর,,,তিন্নি আর সানভির বিয়ে হয়ে যায়,,কারণ তিন্নিকে বাড়ি থেকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলো,,, সানভি সবাইকে অনেক কষ্টে মেনেজ করে তিন্নিকে বিয়ে করে,,আয়ানও বিয়েতে Attend করেছিলো,,সে বিয়েতে শুধু আরোকেই দেখছিলো,,,,,বিয়েতে সবাই অনেক মজা করে,,,,,আরোর ফুফিতো তিন্নিকে নিজের মেয়ের মতো আদর যত্ন করছে,,ঠিক যেমন আরোকে করে,,,,,

এর মাঝে অনেক দিন এভাবে আনন্দের মধ্যে কেটে যায়,,,আয়ান ভাবে আরোকে আবার নতুন করে প্রপোজ করবে,,,,তাই সে আরো কে কল দিয়ে বললো,,,,

আয়ান:বেস্ত আছো???

আরো:না বলেন,,,,

আয়ান:বলছি আজ সন্ধায়,কি দেখা করা যাবে??

আরো:ওকে,,,

আয়ান:Thanks,,,আয়ান কল কেটে দিয়ে সব Arrange করতে চলে যায়,,,

এদিকে আরো মোবাইলটা রেখে টুনুমুনু কে কোলে নিয়ে বারান্দায় চলে যায়,,,নিজে নিজে আয়ানের কথা ভেবে মুচকি মুচকি হাসছে,,পেছন থেকে তিন্নি এসে বললো,,

তিন্নি:কি গো আমার ননদিনী এভাবে মুচকি মুচকি হাসছে কেনো শুনি???

আরো তিন্নিকে সব বললো,,,তিন্নি তো আরো কে খোঁচানো শুরু করে দিয়েছে,,,,,,,কিছুক্ষন পর তিন্নি চলে যায়,,

সন্ধায়,,,

আরো নীল রংয়ের গাউন ওপরে সাদা একটা কুটি পড়লো,,,,গলায় নানান রঙের একটা স্কার্ফ ,চুল ছেড়ে দিয়েছে,,,চোখে চশমাটা আছে,,,ঠোটে হালকা লিপিস্টিক দিলো,,,,এরপর মোবাইলটা হাতে নিয়ে চলে গেল আয়ানের সাথে দেখা করার উদ্দেশ্যে,,,,

আয়ানের দেওয়া ঠিকানায় আসলো,,,,পেছন থেকে আয়ান আরোর চোখ ধরে সামনে নিয়ে গেল,,,,এরপর চোখ থেকে হাত সরিয়ে নেয়,,,,

আরো সামনে তাকাতেই অবাক হয়ে যায়,,,,আরোর চারপাশে নানান রঙের ছোট ছোট বাতি,,,,সন্ধা হওয়ায় আরও সুন্দর লাগছে চারপাশ টা,,আরো মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে আছে,,আয়ান তো আরোর থেকে চোখ ফেরাতেই পারছেনা,,,,

আয়ান আরোর সামনে হাটু গেড়ে বসে আছে আছে হাতে রিং নিয়ে,,,

আয়ান:আরো আগের বার রায়ার জন্য তোমাকে অনেক কষ্ট পেতে হয়েছে,,,এর জন্য আমি অনেক দুঃখিত,,, তুমি জানো আরো এই সাতটা বছর আমি কিভাবে পার করেছি??রোজ রোজ তোমার ছবিটা বুকে নিয়ে কেঁদেছি,,,,,অনেক জায়গায় তোমাকে খুজেছি আরো!!কিন্তু সবসময় নিরাশ হয়ে ফিরেছি,,,,হাসতে ভূলে গিয়েছিলাম,,,,এখন দেখো আল্লাহ আবার তোমাকে আমার কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে,,,,আরো আমি তেমাকে আর হারাতে চায় না,,,,অনেক বেশী ভালোবাসি তোমায়,,এতোটা ভালোবাসি যে,,তোমাকে ছাড়া আমি নিজেকে কল্পনা করতে পারিনা,,,আরো একবার কি সুযোগ দিবে???কোনোদিন চোখের কোণে জল আসতে দিবো না,,,,,,,তোমাকে নিজের Girl Friend না Wife এর পরিচয়ে রাখতে চায়,,দিবে কি সেই সুযোগ??? আরো??? Will You Marry me??

আরোর খুশিতে চোখ দিয়ে জল গড়িয়ে পরছে,,,আরো ভাবেনি আজ আয়ান তাকে এভাবে Propose করবে,,,আরো হাত এগিয়ে দিয়ে বললো,,

আরো:Yes I will,,bcz I Also Love You,,,

আয়ান রিং পড়িয়ে দিয়ে আরোকে জড়িয়ে ধরে বললো,,

আয়ান:আরো?কখনো আমাকে ছেড়ে যেওনা প্লিস পাগল হয়ে যাবো,,,,তোমাকে ছাড়া সত্যিই আমি মরে যাবো,,

আরো:মরার কথা যদি আরেকবার মুখে আনো আমি নিজেই তোমাকে মেরে দিবো বলে দিলাম,,,

আয়ান হেসে বললো,,,

আয়ান:Ok ok Sorry, মিস কিউটিপাই,,

আরো:It’s ok,,

আয়ান আরোর কপালে চুমু দিয়ে বললো,,,”ইনশাল্লাহ সবসময় চেষ্টা করবো এভাবে হাসিখুশিতে রাখার”

আরো চোখ বন্ধ করে বললো”শুধু একটায় চাওয়া,,আমার জীবনের শেষ নিশ্বাস অব্দি যেন আপনাকে পাশে পায়,,কখনো ছেড়ে যাবেননা তো??

আয়ান:একদম না,,,,,

আরো:I love You Ayan,,,

আয়ান:I love You too মিস কিউটিপাই বিল্লিরাণি,,,,

অতঃপর মান অভিমান ভূলে আবার দুজন এক হয়ে গেল,,,,

,,,,,,,,,,,,,,❤সমাপ্ত ❤,,, ,,,,,,,,

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here