addicted_love Writer : Aarizona Ella Part 1+2 (একসাথে)

0
643

#addicted_love
Writer : Aarizona Ella
Part 1+2 (একসাথে)
মা ও মা জলদি আমার নাস্তা দাও।।।নাহলে আজকে ওই টাকলু আমার ১২ টা বাজাবে।
এত চেচাচ্ছিস কেন আসার সময় দে।।। (মা)
আরে মা তোমার হাতে খাওয়া ছাড়া আমি বের হই কি করে বলো তো😁😁😀
হয়েছে আর পাম্প দেওয়া লাগবে না। 😒😒সকাল সকাল তোর পাম্প খাওয়ার ইচ্ছা নাই আমার!।(মা)
উম্মাহহ😘লক্ষী মা আমার।।
সকাল ১০ টায় বের হইয়ে ভৌ দৌড়।বাস ধরতে হবে দেরী হলে টাক্লু আজকে জিন্দা গাইরা ফেলাইবে।।😬😬কারন আজকে নাকি বাংলাদেশ এর অনেক বড় বিজনেসম্যান ইশফাক চৌধুরী er succeed grand Party আছে।
এবার আমার পরিচয় দেওয়া যাক।
আমি আফ্রিন হক এলা,মা বাবার একমাত্র সন্তান।আমি মা কে নিয়ে ঢাকা উত্তরায় থাকি।বাবা আমাদের মাঝে নেই।গত চার মাস আগে বাবা মারা যান। উত্তরায় আমাদের নিজস্ব ছোট খাটো এক টা বাড়ী আছে। যেখানে মা কে নিয়ে আমি একা থাকি।আমি সবেয় মাত্র ইন্টার পাস করেছি।বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে ঘরের আর্থিক অবস্থা একদম যাই যাই।।😢😢
ভালো কোনো চাকরি না পাওয়ায় একটা বার এ ইচ্ছা না থাকার সত্ত্বেও ওয়েটার এর জব করতে হচ্ছে।😩😩😩
এগুলা ভাবতে ভাবতে শেষমেষ পৌছালাম আমার গন্তব্ব্যে।😒😧
[GRoOminG night club and bar]
আল্লাহ আমাকে ওই টাকলুর হাত থেকে রক্ষা করুন।কারন আমি ১ ঘন্টা লেট।ঢুকতে ঢুকতেই টাকলুর আগমন।😭😭
কি ম্যাডাম? ক টা বাজে? 😈(ম্যনেজার)
স্যার আসলে রাস্তা খুব জ্যাম ছি………..😣😣
চুপ কর😤কোন দিন টা নেই তোমার,যে রাস্তা জ্যাম থাকে না?এটা কি তোমার বরের প্রপারটি যে যখন ইচ্ছা তখন আসবে?😠 (ম্যানেজার)
স্যার আসলে😣😣😞…….. আমার বরের না আপনার বসের প্রপার্টি এটা। আর আমি এখনো অবিবাহিত।যদিও আপনার বস কে আমি কোনভাবেই বিয়ে করতে রাজি নই।কারন বস ও আপনার মত টাকলা আর বুইজ্জা।😬🙊🙈😷😰
কি কইলি তুই?😈😡😠(ম্যনেজার)
না মানে স্যার আমাদের বস টাক্লা আর বুইজ্জা হলেও অন্নেক হ্যান্ডসাম আপনি ত একদম উনার মতন ই (বেডা কাইল্লা হনুমান,কালা কাওয়া, তোরে মন চাই উল্টা লট্কাই ইচ্ছা মতো পিটাইতে) মনে মনে।।😬😬😬😬😤😤
যাই হোক আমি হ্যান্ডসাম সত্যি কথা বলার কারনে আজকে তোমাকে ছাড় দিলাম।😁 আর শুনো সবাই কে বলে দাও যেন কোন কিছুর কমতি না থাকে।অনেক বড় ডিল কোন কারনে যদি হাতছাড়া হয় তাহলে তোমাদের আগামি দুই মাসের বেতন কাট।😏😏(ম্যনেজার)
টাকলার বহিঃ গমন 😅😅😅
আমি সহ আরো ১০ জন লেডী ওয়ারকার আছে।
সবাই মিলে পুরো ক্লাব এর ডেকোরেশন এ লেগে গেছি।সবাই যার যার মত কাজ করছে।
পুরো ক্লাবে ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট লাইটীং করা হয়েছে। টেবিল,চেয়ার নিল আর সাদা কম্বিনেশনে সাজানো হয়েছে।জাস্ট ওয়াও!!!!😍😍
ডেকোরেট করতে করতে প্রায় বিকেল ৪ টা বেজেছে।
টাকলু এর জালায় দুপুরের খাবার খেতে পারি নি।
মা খাবার দিয়েছিল বক্স এ তা খেয়ে পুরা ক্লাব আর একবার চেক করলাম সবাই।।বেশ দারুন লাগছে😎😎
কিরে তুই ড্রেস চ্যান্জ করছিস না কিছুক্ষন এর মধ্যে সব গেস্ট রা আসা শুরু করবে।সন্ধা ৭ টা বাজে Mr.ইশফাক চৌধুরী আমেরিকা থেকে ডাইরেক্ট ল্যান্ড করবে এখানে।শুনেছি অন্নেক দারুন দেখতে😍।।(মারিয়া) এলার কলিগ প্লাস ফ্রেন্ড।
তুই এতো লুইচ্ছা কেন?এইসব বলতে লজ্জা করে না তোর? 😏😒
চলবে।।।।।।।
#addicted_love
পার্টঃ ২
Writer : Aarizona Ella
সন্ধ্যা ৬:৩০ আস্তে আস্তে সব গেস্ট রা আসা শুরু করে দিয়েছে।আমিও রেডী হতে গেলে দেখি ড্রেস আনতে ভুলে গেছি।।।কি করবো এখন?অনেক কান্না পাচ্ছে আমার।বাসা থকে আনতে গেলে কমপক্ষে আধা ঘন্টা তো লাগবে ফিরতে ফিরতে এখন কি করি খুব কান্না পাচ্ছে আমার।।।কান্না করছি আর নাক এর পানি মুচ্ছি।
কিরে তুই কাদছিস কেন?আর এখনও রেডী না হইয়ে কি এখানে কি করছিস তুই?”!!!”!! (মারিয়া)
_———————-“!!!!
কি সমস্যা কাদছিস কেন? কিছু তো বল!!!না বললে বুঝবো কেমনে? (মারিয়া)
-__________!!!!!!!!
আজিব মেয়ে তো? কিছু বলছিস না কেন তুই।দেখ আমার অনেক রাগ উঠে যাচ্ছে কিন্তুু!!! কিছু বলছিস না শুধু কাদছিস আর নাক এর পানি মুচ্ছিস!!!ছি!!!!!!! য়ায়ায়াককক!!!!(মারিয়া)
আমি না কাপড় আনতে ভুলে গেছি এখন কি করবো? ওই টাকলা আমাকে জিন্দা মাটিতে পুতে ফেলবে।।আমাকে ওয়ার্ন করেছিল টাকলা।যদি কোন গরবর হয় তাহলে আস্তো রাখবে না আমার।।।(ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাঁদতে কাঁদতে বললাম)
(কিছুক্ষন ভেবে) আচ্ছা শুন এখন মাত্র ৬:৪০।তুই বাসাই যা।গিয়ে কাপড় নিয়ে আয় তারাতারি।ততক্ষনে আমি টাকলা কে ম্যানেজ করছি আর শুন ইশফাক চৌধুরী আসার আগে যেন এখানে এসে হাজির হোস।নাহলে তোর সাথে সাথে টাকলা আমাকেও জিন্দা গারবে মাটিতে।(মারিয়া)
(খুশি হইয়ে চোখ মুছতে মুছতে)থ্যাংক ইউ দোস্ত।।।বলেই এক দৌড়।
ভাগ্য ভালো ছিল ১৫ মিনিট এর মধ্যে বাসাই পৌছায়।তারাতারি আলমারি থেকে ব্ল্যাক গাউন টা পড়ে নিলাম আমার আবার কাপর-চোপর এর সখ বেশি।এ টা বাবা বেঁচে থাকতে নিয়ে দিয়েছিল।এক টা শপিং মলে দেখে বায়না ধরেছিলাম।।বাবার আদুরে ছিলাম তাই বাবা মানা করে নি কখনো কোন কিছুর জন্য।আজ বাবা নাই তাই অনেক কস্টে দিন কাটা তে হচ্ছে ভেবেই চোখের কোনে জল চলে এলো।
কিরে তুই কখন এলি?আমাকে ডাকলি না যে।(মা)
মা আমি কাপর নিতে এসে ছিলাম।নিতে ভুলে গিয়েছিলাম তাই।আচ্ছা মা আমি যাচ্ছি আমার এম্নি তে অনেক লেট হয়ে গেছে(চোখে হাল্কা কাজল দিতে দিতে বললাম)
ফিরবি কখন?(মা)
রাত ১১ টা বাজবে।আচ্ছা মা আসি।আল্লাহ হাফেয।
সাবধান এ থাকিস রে মা। (মা)
আচ্ছা মা।।। খেয়ে নিও রাতে (যেতে যেতে)
প্রায় সাড়ে সাত টা বেজে গেছে যেতে যেতে!! আল্লাহ জানেন কি হবে আজকে আমার সাথে!আজকে শেষ আমি।।।
ক্লাব এ ঢুকে যা দেখলাম নিজের চোখ এ বিশ্বাস করতে পারছি না!!! ভয় এ চুপসে গেছি।
টাকলা আমাকে দেখেও কিছু বললো না।শুধু এটা বল্লো আজকের মতো আমাকে ছাড় দিয়েছে।কারন এখনো ইশফাক চৌধুরী আসে নি।
সব গেস্ট রা৷ চলে এসেছে শুধু ইশফাক চৌধুরী ছাড়া।
এতক্ষন কি করছিলি তুই? জানিস আজকে মরতে মরতে বাচ্ছি!!! অস্থির হইয়ে গিয়েছিলাম।টাকলু এর কাছে ধরা খাই গিয়েছিলাম।ভাগ্যিস টাকলা ১০ মিনিট এর সময় দিয়েছিল।যদি ১০ মিনিট এর মধ্যে তুই এখানে হাজির না হতি তাহলে আল্লাহ জানেন কি হতো।(মারিয়া)
যাক থ্যাংক ইউ সো মাচ দোস্ত!.।।
আমি আসার ঠিক ১০ মিনিট পর অনেক গুলা মিডিয়ার লোক আসা শুরু করে দিয়েছে একে একে আরো অনেকগুলা গেস্ট আসলো।
কয়েকজন বডীগার্ড গাড়ির দরজা খুলে দিল। গাড়ি থেকে নামার সাথে সাথে মিডিয়ার লোক গুলা তাকে ঘিরে ধরলো।ক্লাব এ ঢুকার সময় সবাই লোক টার সামনে ভিড় জমালো যার কারনে লোক টা কে দেখা যাচ্ছে না।একজন মিডিয়ার লোক তাকে বললো
স্যার আপনি বিখ্যাত ও সম্রিদ্ধশালী একজন বেক্তি।বিজনেস এ আপনার অনেক সুনাম আছে।এর বেপারে আপনার সে কি? (লোকটি)
আমি যা চাই তা হাসিল করতে আমাকে কেউ আটকে রাখতে পারে না।বিজনেস আইকন হওয়ার স্বপ্ন ছিল আমার আর তা ই আমি হাসিল করে ছেরেছি।। i must get those things what i want. আর যেটা হাত এর নাগাল এর বাইরে চলে যায় তা আমি ছিনিয়ে নিতে একটু ও দ্বিধাবোধ করি না। i hope u get that? (ইশফাক)
জি স্যার বুঝেছি।(লোকটি)
অনেক চেষ্টা করছি উকি মেরে দেখতে কারন বেডার কথায় দম আছে।
সবাই সরে যাওয়ার পর ফাইনালি দেখলাম জনাব ইশফাক চৌধুরী কে।
ওমা কি লম্বা!!! ৬ ফিট। ফুল্লি সালমান খান এর বডি।ফর্সা রং।।পুরা হিরো কে মাত করে।দেখে ক্রাশ খাইলাম।
সোজা গিয়ে ফ্রন্ট টেবিল এর চেয়ার এ বসলো সাথে একটা মেয়ে ও গিয়ে বসলো।
যতক্ষন তাকায় ছিলাম ততক্ষণ পর্যন্ত জনাব কে এক চিলতে ও হাসতে দেখি নি।পুরা তিতা করল্লার মত বানিয়ে রেখেছে মুখ টা কে।
চলবে।
আমি নতুন লেখিকা।যদিও গল্প পরতে ভালবাসি অনেক।যখন থেকে গল্প লিখা শুরু করেছি হারে হারে বুঝতে পারছি আসলে গল্প লিখা কতটা কষ্টকর।যারা আমার গল্প পরছেন আশা করি আমার পাশে থেকে আমাকে উৎসাহিত করবেন।ভুল ক্রুটির জন্য ক্ষমার চোখ এ দেখবেন।সবাই ভাল থাকবেন আর আগামি পর্বের জন্য অপেক্ষা করবেন।আবারও আসবো আগামি পর্বের সাথে।আল্লাহ হাফেজ। 😊😊😊

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here