Surprise Lover -Part 13+14

0
98

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:13+14

আয়ান Class শেষ করে তার কেবিনের দিকে বা বাড়াতে কেউ আয়ানের হাত ধরে টান দিয়ে একটা ক্লাসের পিছনে নিয়ে আসলো,,,আয়ান বেচারা তার দিকে ভুত দেখার মতে তাকিয়ে আছে,,সে দেখলো আরো তার হাত ধরে আছে,,

আয়ান:কি করছো কি হাত ছাড়ো!!

আরো হাত ছাড়লো না চুপ হয়ে আছে,,

আয়ান:What the,,,.আয়ান আর কিছু বলতে পারলো না আরোর চোখের দিখে তাকাতেই দেখলো আরোর চোখের পানি টলমল করছে,,,আরোর চোখে পানি আয়ানের কেন যেন সহ্য হচ্ছে না,,

আয়ান:আরে আরো কাদছোঁ কেন?

আরো তো কেঁদেই যাচ্ছে,,কাদঁতে কাদঁতে তার নাক লাল হয়ে গেছে আর বারবার নাক টানছে,,

আরো:স,,,স,রি,স্যা,,র,, Please আ,,মায় ক্ষমা ক,,রে দিন,

আরো কান্নার জন্য কথা বলতে পারছেনা,,কান্নায় তার হিচকি উঠে গেছে,,আয়ান তো রেগে থাকতে পারলো না,,আয়ান আরোর গালে হাত রেখে বললো,,

আয়ান:কান্না বন্ধ করো,,

আরো:আগে আপনি আমায় ক্ষমা করে প্লিস,, আমি ইচ্ছে করে দি নাই বিশ্বাস করেন,।

আয়ান:আচ্ছা,,,,

আরো:আসলে ওইদিন আমার মনে হয়েছিল কেউ আমার ওরনা টেনে ধরেছিল আর পিছন দিকে আপনি আসলেন,,আমি না দেখে,,,,কথাটা বলে আরো মাথা নিছু করে ফেললো,,

আয়ান:Ok ok,,এবার কান্না বন্ধ করো,,

আরো:ক্ষমা করেছেন তো??

আয়ান:হুম করেছি,, এইবার তো বন্ধ করো,

আরো চোখ মুছলো,চোখে মুখে হাসির ঝিলিক,,আরো বললো

আরো:সত্যিই?? 😍

আয়ান:হুম,,

আরো:Thank you sir বলে আয়ানের গালে kiss.করে দিল,,,আরো নিজেও বুঝতে পারেনি সে কি করলো,,যখন সে বুঝতে পারলো তখন লজ্জায় দৌড় দিয়ে চলে গেল,,,

এদিকে রায়া আয়ানকে তাকতে এসে এসব দেখে রাগে জ্বলে যাচ্ছে,,,

আয়ান এখনো গালে হাত দিয়ে দাড়িয়ে আছে,,সে ভাবেনি আরো এরকম একটা কাজ করবে,,আয়ানের মুচকি হাসছে,,হঠাৎ কেউ তার কাধে হাত রাখলো,,আয়ান পেছনে ফিরে দেখলো রায়া,, আয়ানের বিরক্তি এসে গেল,,কারণ রায়া একটু চিপকু টাইপের,,,,যার জন্য তাদের friendship হওয়ার পর ও আয়ান রায়ার থেকে দুরে দুরে থাকতো,,

আয়ান:তুমি এইখানে??

রায়া:কেন আসতে পারি না??

আয়ান:না আমি তা কখন বললাম,,

রায়া:মম তোমায় যেতে বলেছে,,

আয়ান:তোমার মম আমাকে চিনে কিভাবে?

রায়া:তোমার কথা বলেছিলাম i mean আমাদের friendship এর কথা,,তাই মম তোমাকে নিয়ে যেতে বললো,,

আয়ান:ওওও,,,আমার ক্লাস আছে,, বিকালের দিকে যাবো,,,

রায়া:ওকে বাই,,

রায়া চলে গেল,,আয়ান একটু অবাক হলো,,কারণ রায়া এতো সহজে চলে গেল আয়ান কখনো ভাবতে পারেনি,,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আরো ক্লাসে এসে হাপাতে লাগলো,,আরো বেচারি অনেক লজ্জা পেয়েছে,,

আরো:হায় হায় আমি এটা কি করে ফেললাম,,,স্যার এখন কি ভাববে,,

জান্নাত & সাজি:এহেম,, এহেম,,,

আরো:তোরা??

জান্নাত :কি এমন করেছিস যে স্যার ভাববে??

আরো লজ্জায় বলতেও পারছে,,

সাজি:লজ্জা নয় বেবি জানতে হবে,,, জান্নাত হাসতে লাগলো,,

আরো:😒😒

জান্নাত :বলে ফেল,আবার কি কান্ড ঘটিয়েছিস!!

আরো সব বললো,,

সাজি:হায় হায় আরো বেবি স্যারকে কিস দিয়েছে😂😂😂

জান্নাত :আমার ২ বছরের রিলেশন অথছ আমি এখন পর্যন্ত কিস করেনি,,আরো তুই তো রিলেশন না করেই কিস,,,সাজি ভাবতে পারছিস, কতো রুমেন্টিক সিন আমরা মিস করেছি,

সাজি:একদম ঠিক,না জানি,,সাজিকে বলতে না দিয়ে আরো বললো,,

আরো:তবে রে দাড়া তুদের একদিন কি আমার দশ দিন শাঁকচুন্নি,, বলেই দুজনের পিছনে দৌড়,,,

দৌড়াতে দৌড়াতে তিনজন মাঠে এলো,,,হঠাৎ আরোর পা মচকে যাই,,যার ফলে সে পড়ে যেতেই কেউ ধরে ফেলে,,আরো চোখ খুলে দেখে আয়ান তাকে ধরে রেখেছে,,কিছুক্ষন একজন আরেকজনের চোখের দিকে তাকিয়ে তাকলো,,আরোর সকালের কথা মনে পড়তেই লজ্জায় চোখ নামিয়ে ফেলে,,আয়ান তাকে সোজা করে দাড় করায়,,,

আরো দাড়াতেও পারছে না,,তাই বসে পড়ে,

আয়ান:কি হলো আরো তোমার পায়ে??

আরো:কিছুনা স্যার,,

আয়ান:জিজ্ঞেস করেছি আমি!!😠😠

আরো:স্যার পা মচকে গিয়েছে,,

আয়ান:কই দেখি??

আরো পা ওঠালো,,,আয়ান আরোর পা ধরতে আরো আহহ বলে চিৎকার দিল,,

আয়ান:আস্তে চিল্লাও,,কান আমার গেছে,মনে হয়,,

আরো আয়ানকে ভালো করে দেখে বললো,,

আরো:না না একদম কানের জায়গায় কান আছে কোথাও যায়নি,,

এর মধ্যে আয়ান আরোর পা ঠিক করতেই আরো এবার একটু জোরে চিৎকার দিল আর বললো,,

আরো:হায় আল্লাহ গো পা তো এখন আরোও ভেঙে দিল,,,আমি এখন হাটবো কিভাবে??

আয়ান:ফাটা বাশ,, একটু আস্তে আশে পাশে পাখি যা ছিল সব তো ভয়ে উড়াল দিল,,পা ভাঙেনায় মিস,,ঠিক করে দিছি দেখেন,

আরো একটু হেটে দেখে বললো,,,

আরো:সত্যিতো আমার পা ঠিক হয়ে গেছে yeahooo বলে একটু ঘুরতেই আবার ধপাস করে নিচে পরে যাই,

আয়ান,,সাজি,জান্নাত হাসতে হাসতে নিচে বসে গেছে,,আয়ান তো পেট ধরে হাসতেছে,,হাসি থামানোর নাম নেই,,আরো এক দৃষ্টিতে তার হাসির দিকে তাকিয়ে আছে,আর ভাবছে একটা মানুষের হাসি এতো সুন্দর কিভাবে হয়,,,,আরো তো আবার ও ক্রাস খেয়ে গেল,,, আরো মনে মনে বললো,,

আরো:(হায় মে মারজাবা,,,হাসিটা কত্তো কিউট,,,এভাবে সারাক্ষণ হাসি খুশি থাকলে কতো ভালো লাগে,,না এখন তো রাগওয়ালা আমার সাথে শুধু রাগ আর রাগ)

আয়ান:এই ভাবনার রাণী!!কোন ভাবনায় ডুব দিলেন,,,, এখানে এভাবে বসে না থেকে উঠেন,,,,,

আয়ান এক হাত বাড়িয়ে দিল আরোর দিকে,,আরো তার হাতে হাত রাখতেই কেঁপে ওঠে,,,দুজনের heart beat বেড়ে যাই,,আরো ওঠে তাড়াতাড়ি হাত ছেড়ে দেই,,

আরো: Thanks,

আয়ান: Welcome,, এভাবে বাচ্চাদের মতো না লাফিয়ে একটু দেখে শুনে চলাফেরা করিও,,পড়ে গেলে ধরার জন্য সব সময় আমি থাকবো না, কথাটা বলে আয়ান চলে গেল,,

আরো:Attitude বিল্লু কোথাকার,,

জান্নাত :ওরে আরো আর কতো নাম দিবি,,

আরো:অনেক😁😁

সাজি:উফ বাবা বাচাঁ গেল অবশেষে স্যার এর রাগ ভাঙলো,,

আরো:হুম,

জান্নাত :জানিসনা কেন ভাঙছে?? আরোর কি যেন দিয়েছিলো,,?😂😂

আরো:তোদের আমি উস্টা মারবো সত্যি সত্যি😬😬😬

সাজি & জান্নাত :😂😂😂

আরো:বাড়ি যাবি নাকি রোদে দাড়িয়ে শুটকি হবি??

জান্নাত :নারে বইন চল,,

এরপর তারা বাড়ির পথে রওনা দিল,,,,

আরো বাড়িতে আসলো,,,দুপুরে আরো বারান্দায় গিয়ে আজকের ঘটে যাওয়া ঘটনা মনে করে মুচকি মুচকি হাসছে,,

আরো:ইস কি লজ্জা কি লজ্জা,,আমি স্যারকে,,,ধুর বাবা স্যার এখন কি ভাববে,,,

এদিকে আয়ান বাড়িতে আসলো সাথে ঠোটের কোণে মুচকি হাসি,,

রিমা চৌধুরি:কি হলো আয়ান এভাবে মুচকি মুচকি হাসছিস ব্যাপার কি?

আয়ান:কিছুনা মম এমনি,,

রিমা চৌধুরি:নানা এমনিতেই তুই এভাবে সবসময় হাসিসনা,, প্রেমে পড়েছিস নাকি?

আয়ান:উফ মম কি সব বলো না তুমি,,আমি রুমে যাচ্ছি,,😒😒

রিমা চৌধুরি:হাহাহা ছেলে আমার লজ্জা পেয়েছে,,,,,

আয়ান রুমে বসে ভাবতে থাকে আরোর কতা,,আরোর সেই হাসি,, সেই হাত নেড়ে কথা বলা,,বাচ্চাদের মতো লাফানো,,,সব মিলিয়ে একটা কিউট ডল,,,

এদিকে আরোর ভাবনার বারোটা বাজালো তার মাম্মামের দুই চোখের বিষ,i mean আরোর মুবাইল,, আরো বললো,,,

চলবে!!!!!
😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:14

এদিকে আরোর ভাবনার বারোটা বাজালো তার মাম্মামের দুই চোখের বিষ,i mean আরোর মোবাইল😁😁,, আরো বললো,,,

আরো:ভাবনার ১৪/১৫ টা বাজায় দিলো এই মোবাইল,,,উফ,,ওই শাঁকচুন্নি জানতু এই সময়ে কল দিয়েছিস যে??

জান্নাত চুপ করে কান্না করছে,,,আর বারবার নাক টানছে,, আরো বুঝতে পেরে বললো,,

আরো:কি হলো?কান্না করছিস কেন??

জান্নাত:😭😭😭😭

আরো:আরে বাবা না বললে বুঝবো কেমনে,,কি হয়েছে সেটা তো বল,,

জান্নাত :বাবা,আমার বিয়ে ঠিক করে ফেলেছে আরো!😭😭

আরো:What???কি বলছিস তুই এসব??

জান্নাত :হুম কাল নাকি দেখতে আসবে,,আরো আমি জিদানকে ছাড়া কাউকে বিয়ে করতে পারবোনা,,

(জুনায়েদ নামের পরিবর্তে জিদান দেওয়া হলো)

আরো:তো তুর বাবা কে বলিসনি??

জান্নাত :বলতে গিয়েছিলাম,, আমি বাবাকে বললাম,,

,,

জান্নাত :বাবা আমার একটা কথা বলার ছিল তোমাকে!!

-হুম বল,,

জান্নাত:আসলে বাবা,,

-ওও তুকে একটা কথা বলতে প্রায় ভুলেই গেছি,,শুন আমার বন্ধু আছেনা রবিন ওর ছেলে গত পরশু দেশে ফিরেছে,,রবিন তোকে পছন্দ করে রেখেছে,,আর বলেছে কাল তোকে দেখতে আসবে,,আমি জানি মা আমার কথা তুই অমান্য করবিনা,,তাই না মা?তুর কোনো আপত্তি আছে?

জান্নাত :না বাবা(কান্না চেপে বললো)

-তুই যেন কি বলবি!!

জান্নাত :না বাবা কিছু না,,আমি ওপরে যাই
,,,,,,,,,

আরো:জিজু কে বলছিস?

জান্নাত :হুম, কিছুক্ষন আগেই বলেছিলাম,রেগে ফোন অফ করে রেখেছে,,আরো আমি কি করব বল,,একদিকে বাবার সম্মান অন্যদিকে আমার ভালোবাসা,,আমি কোনোটাই ছাড়তে পারবো না,,,,,মরে যাওয়া ছাড়া,জান্নাত কে বলতে না দিয়ে আরো বললো,,

আরো:লাত্তি মেরে উগান্ডায় পাঠামু,,শাঁকচুন্নি,, ডায়নি,,

জান্নাত :তো কি করবো বল,😭

আরো:আচ্ছা আমি আর সাজি বিকালে আসবো,, আন্কেলকে একটু বুঝিয়ে বললে সব ঠিক হয়ে যেতে পারে,,

জান্নাত: আর যদি না হয়??

আরো:আমি বুঝিনা এতো নেগেটিভলি নিস কেন,,আমি সবসময় পজেটিব নিই,,সো নো প্যারা জাস্ট চিল,,,তুই টেনশন নিসনা,,

জান্নাত : তাই যেন হয়,,শুন,সাজিকেও সব বলিস,,মোবাইল হয়তো অফ থাকবে,,সাজিকে তুই বলে দিস,,

আরো:ওকে রাখছি তাহলে,,

সাজি:হুম,,,

সাজি কল কেটে দেওয়ার পর আরো ভাবতে থাকে কিভাবে জান্নাতের আব্বুকে manage করবে,,,তারপর সাজিকেও কল দিল,,দুজনে plan করলো বিকালে জান্নাতের বাসায় যাবে,,,,,,

বিকালে,,,

আয়ান রায়াদের বাসায় যাওয়ার জন্য রেডি হচ্ছে,,,আয়ানের যাওয়ার কোনো ইচ্ছা নেই,,রায়ার মমের কথা রাখতে যেতে হচ্ছে,,,আয়ান হুয়াইট শার্ট ব্লু ব্লেজার,,ব্লাক জিন্স,,হাতে বান্ড্রের ঘড়ি,,চুল স্পাইক করা,উফ পুরাই কিলার লুক (আমি নিজেও Crush খেয়ে ফেললাম🙈🙈)

আয়ান নিচে নামতেই আয়ানে মম বললো,

রিমা চৌধুরি :কিরে বাবা কই যাচ্ছিস?

আয়ান:মম একটা friend এর বাসায় যাচ্ছি,,

রিমা চৌধুরি :আচ্ছা যা,, সাবধানে যাস কিন্তু,

আয়ান:হুম মা,আসি তাহলে,,

আয়ান গাড়ি নিয়ে চলে গেল রায়াদের বাসায়,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

এদিকে আরো বিকালে জান্নাতের বাসায় যাওয়ার জন্য রেড়ি হচ্ছে,,

আরো:কি পরবো? কি পরবো??

রেহানা রহমান:আরো মা সাজি এসেছে!!

আরো:মাম্মাম সাজিকে আমার রুমে পাঠাও,

সাজি রুমে আসতেই তার মাথা ঘুরে ওঠলো,

সাজি:আরো কি বাচ্চি রেড়ি হসনি তুই এখনো? রুমের কি,হাল করেছিস?তুর রুম বলে মনে হচ্ছে না,,মনে হচ্ছে এটা কোনো গরুর ঘর,,

(আসলে আরো আলমিরা থেকে তার সব জামা আসে পাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রেখেছে,,)

আরো:বেশি কথা না বলে ড্রেস সিলেক্ট করে দে,,

সাজি:ok,,

সাজি একটা হুয়াইট লং গাউন সাথে ব্লু জিন্স কুটি সিলেক্ট করে দিল,,এক হাতে ঘড়ি,,, চুল ছেড়ে দিয়েছে,গলাই একটা স্কার্ফ ঝুলানো ,,আরোকে দেখতে পুরাই বার্বি ডল এর মতো লাগছে(আয়ান ঠিক নাম দিয়েছিল কিউটিপাই 🙈)

সাজি:বাহ তুকে খুব সুন্দর লাগছে,,

আরো:সুন্দর না সুন্দরী হবে😁😁😁

সাজি:ও মোর খোদা,,এখন চল,,

আরো:তুকেও সুন্দরী লাগতেছে😁

সাজি:আমি জানি আমি সুন্দরী,

আরো:নেহি তুই একটা পেত্নি,

সাজি:বেশি কথা না বলে চল😕

আরো আর সাজি জান্নাতের বাসার সামনে আসলো,,কলিং বেল চাপ দিতেই জান্নাত এসে দরজা খুলে দিল,,জান্নাতের চোখ মুখ ফোলে আছে,,মনে হয় অনেক কেঁদেছে,,

সাজি:চেহারার কি হাল করেছিস,,

জান্নাত : বাদদে ভিতরে আয়,,

আরো:শুন জানতু তুই টেনশন করিস না আমরা আছি আন্কেলকে আমরা মেনেজ করে নিব,,

জান্নাত :বাবা যদি কষ্ট পায় তখন কি হবে?

আরো:কষ্ট পাবেনা,,

জান্নাতের মা বললো,

-আরে সাজি আর আরো এসেছে ওদের ভিতরে না এনে বাহিরে দাড় করাই রাখছিস কেন?

আরো:দেখোনা আন্টি তোমার মেয়ে আমাদের বাহিরে দাড় করাই রাখছে,

-ভিতরে আয় মা,,বস তোরা,,এতোদিন পর আমার কথা মনে পরলো তুদের তাইনা?

সাজি:আন্টি,তুমি কি বলছো?তোমাকে কি আমরা ভূলতে পারি??

-হুম তা তো দেখতেই পাচ্ছি!আচ্ছা তোরা বস,আমি নাস্তা নিয়ে আসছি,

আরো:আন্টি আন্কেল কই?

-আছে তো,, আচ্ছা আমি ডেকে দিচ্ছি,,

জান্নাতের আব্বু আসলো,,,আরো আর সাজি সালাম করে কিছুক্ষন কথা বললো,,এরপর আরো জান্নাত কে ইশারা করে চলে যেতে বললো,,জান্নাত চলে যাওয়ার পর আরো বললো,,

আরো:আন্কেল আপনাকে একটা কথা বলার ছিল,,

-হ্যা মা বলো,,

আরো :কিভাবে শুরু করবো বুঝতেছিনা,আন্কেল আগে আপনি বলেন রাগ করবেননা,,

-আচ্ছা আচ্ছা রাগ করবো না বলো,,

আরো:আন্কেল,,,,, শুনলাম কাল সাজিকে দেখতে আসবে!!

-হুম, ছেলে অনেক ভালো,আর,,

আরো:আন্কেল প্লিস আপনি জান্নাত কে ছেলেটার সাথে বিয়ে দিয়ে ভূল করবেননা,,

-মনে কি,, কি বলছো আরো তুমি,,

আরো:আন্কেল আমি ঠিক বলেছি,,জানেন আন্কেল জান্নাত আপনাদের কত্তো ভালবাসে,,শুধুমাত্র আপনাদের কথা ভেবে নিজের ভালোবাসাকে বিসর্জন দিয়ে আপনার ঠিক করা ছেলেকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছে,,

-কি??জান্নাত কাউকে ভালোবাসে??

সাজি:হুম আন্কেল,, ২ বছর ধরে জিদান ভাইয়াকে ভালোবাসে,,,

-কি আমাকে তো কখনো বলেনি?

আরো:আন্কেল আপনি কখনো কি জিজ্ঞেস করেছেন মেয়েটা কোনো পছন্দ আছে কি না??মেয়েটা কি চায়??কখনো জিজ্ঞেস করেননি,,,আর আপনাকে কাল বলতে চেয়েছিল কিন্তু তার আগে আপনি অন্য ছেলের সাথে জান্নাতের বিয়ে ঠিক করে ফেলেছেন,, শুধুমাত্র আপনাদের সম্মানের কথা ভেবে জান্নাত কিছু বলেনি,,,,,

-(আরোহি তো ঠিকি বলেছে মেয়েটাকে না জানিয়ে,,,আমি বাবা হয়ে এতো বড়ো অন্যায় কিভাবে করতে পারলাম,,না না এটা হতে পারেনা আমার মেয়ে যাকে ভালোবাসে তার সাথেই বিয়ে দিব)

আরো:আন্কেল I Am sorry, হয়তো এবাবে বলা ঠিক হয়নি,কি করবো বলেন,,জান্নাতের কান্না সহ্য হয়নি তায়তো আমি আর সাজি ছুটে এলাম,,আমাদের মাফ করে দিন,

এদিকে জান্নাত আড়ালে সব শুনে কান্না থামিয়ে রাখতে পারছেনা,,

-না মা ক্ষমা তো আমার চাওয়া উচিৎ,, জান্নাত কে না জানিয়ে আমার পছন্দের ছেলের সাথে ওর বিয়ে দিয়ে দিতাম,,এরপর জান্নাতের বাবা জান্নাতকে ডাক দেই,,,

জান্নাত :বাবা প্লিস আমাকে ক্ষমা করে দাও,,আমি এমনটা করতে চায়নি,,,তোমাদের অনেক কষ্ট দিয়েছি বাবা,,,তুমি যার সাথে বিয়ে দিবে আমি রাজি,,কিন্তু বাবা আমাকে ক্ষমা করে দাও,,(কান্না করতে করতে বলে)

-আরে পাগলি মেয়ে কান্না কেন করছিস?দেখ বাবা,মা তাদের সন্তানের ভালোর জন্যই তো করে তাই না?তুই যদি আগে বলতি তাহলে কি আমি মানা,করতে পারতাম?মা তুর সুখ আমাদের কাছে সবচেয়ে বড়ো,,,,,জিদানকে ওর ফ্যামিলি নিয়ে আসতে বলিস,,

জান্নাত :বাবা তোমাদের কষ্ট দিয়ে আমি এই বিয়ে করতে পারবো না,,,তুমি যদি কথা দিয়ে কথা না রাখো তাহলে তোমার সম্মান নষ্ট হবে,,

-ধুর পাগলি মেয়ে আমি একটুও কষ্ট পায়নি,,বরং তুকে নিয়ে গর্ব হচ্ছে কারণ আমার মেয়েটা আমার সম্মানের কথা ভেবে নিজের ভালোবাসাকে ত্যাগ করতে চেয়েছে,

জান্নাত :তাহলে রবিন আন্কেল??

-ওইটা আমি মেনেজ করে নিব,,

জান্নাত :You are the best pappa,,(বাবাকে জড়িয়ে ধরে বললো)

জান্নাতের মা এসে বললো,,

-আর আমি বুঝি কেউ না??

জান্নাত:no মা তুমিও আমার best মা,,,এরপর আন্কেল রুমে চলে গেলেন রবিন আন্কেলের সাথে কথা বলার জন্য,,জান্নাতের মা নাস্তা দিয়ে যেতেই জান্নাত গিয়ে আরোকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে দিল আর বললো,,

জান্নাত :Thank you Thank you so much,জানিস এক মূহুর্তের মধ্যে আমার মনে মনে হয়েছিল আমি ওকে হারিয়ে ফেলছি,কিন্তু এখন,,আমি আজ অনেক হ্যাপি,

সাজি:আমি যে আছি কেউ হয়তো ভুলে গেছে,,

জান্নাত গিয়ে সাজিকে জড়িয়ে ধরে,,,

জান্নাত :মরার আগ পর্যন্ত তোদের ভূলবো না,,তোরা আল্লাহর দেয়া সেরা Gift,,সত্যি তুদের ঋণ কখনো শোধ করতে পারবো না,

আরো:ঋন শোধ করতে চাস?

জান্নাত :অব্যশয়, কিন্তু কিভাবে করবো যেগুলাই করিনা কেন, কম হয়ে যাবে,,

আরো:বেশি কিছু করতে হবে না,,যতোদিন না তুর বিয়ে হচ্ছে ততোদিন আমাদের Ice-cream আর Chocolate খাওয়াতে হবে,কি বলিস সাজি?

সাজি:একদম আমার মনের কথা বলে দিলি,,

জান্নাত :সব গুলাই ডায়নি,,,

সাজি & আরো:😁😁😁😁

আরো:আচ্ছা জানতু আমাদের যেতে হবে রে,,

জান্নাত :কি বলিস,, না এখন তুদের যেতে দিচ্ছিনা,,

আরো:জানতু বুজার চেষ্টা কর মাম্মাম টেনশন করবে,,আর পাপ্পা ও,,

সাজি:হুম আমার মা ও টেনশন করবে,,

জান্নাত :😢কি আর করবো,,আচ্ছা তাহলে সাবধানে যাস,,

আরো:হুম Ice-cream এর কথা ভুলিস না যেন,,

জান্নাত :ওকে মেরি মা সব ভুললেও তুর ice-cream এর কথা ভুলবো না,,,

আরো আর সাজি হাসতে হাসতে চলে এলো,,রাস্তায় দুজনে হাটছে,, আরো ইচ্ছে করেই রিকশা নিচ্ছে না,,কারণ এই বিকেলে তার হাঠতে অনেক ভালো লাগছে,,কিছুক্ষন পর সন্ধা ঘনিয়ে আসবে,,আর এসময় টা আরো মিস করতে চায়না,,

আরো:জানিস সাজি আমার এত্তো এত্তো খুশি লাগছে জান্নাতের খুশি দেখে,,

সাজি:আমারও,যাক বিয়ে একটা খেতে পারবো,,,,

আরো:হুম Yeahoooo আমি এত্তোগুলা মজা করবো জান্নাতকে বলবো তার বিয়েতে যেন অবশ্যই ice-cream ফুচকা এসব থাকতে হবে,,আর তুর বিয়েতেও, মনে রাখিস,,

(বুঝতেই পারছেন আমার ice-cream সব সব থেকে পছন্দের,,এত্তোগুলা ভালো লাগে😋😋😋)

সাজি:বেশি লাফাসনা আরো স্যার কি বলেছে মনে আছে??

আরোর ভাবতেই লজ্জা লাগছে🙈🙈

আরো:কি যে বলিসনা আমি কই লাফাচ্ছি? 😒😒

সাজি:হুম তা তো দেখতেই পাচ্ছি,,

হঠাৎ আরো বললো,,

আরো:সাজিইইইইইইইইই

চলবে!!!!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here