Surprise Lover -Part 9 +10

0
226

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:09+10

বাড়িতে আরো আসার সাথে তার মাম্মাম বললো,,

রেহানা রহমান:কিরে আরো এতো তাড়াতাড়ি এসে গেলি যে??খারাপ লাগতেছে নাকি মা??

আরো:না মা,,এমনে একটু মাথা ব্যাথা,,, আচ্ছা আমি উপরে যাই,,,,

রেহেনা রহমান:আচ্ছা যা,,,

আরো তার রুমে গিয়ে বিছানায় বসে কাদতে লাগলো,,,আর ভাবলো কাল থেকে সে আয়ানের ক্লাসে কোনোরকম ফাইজলামি করবেনা,,,কাদতে কাঁদতে কখন ঘুমিয়ে গেছে সে নিজেই টের পাইনি,,,,,,দুপুরে তার মাম্মাম আসলো,,

রেহানা রহমান:আরো???দরজা খোল??

আরো:,,,,,,😴😴😴

রেহানা রহমান:ওহহো মেয়েটা না খেয়ে ঘুমিয়ে গেল,,,আরো ওঠনা,,

আরোর ঘুম ভাঙলো,,আরো বললো,,

আরো:মাম্মাম আমার খেতে ইচ্ছে হচ্ছে না,,

রেহানা রহমান:এটা কেমন কথা,,,বেশি খারাপ লাগতেছে নাকি??ডাক্তার আনবো?

আরো:না মাম্মাম তুমি যাও,,,

রেহানা রহমান:আচ্ছা,,,

আরোর মাম্মাম চলে গেল,,,আরো ভাবতে লাগলো,,

আরো:কেন যে আপনার প্রতি এতো মায়া জন্ম নিয়োছে তা আমি নিজেও জানিনা,,,আপনার সাথে ওই মেয়েটাকে দোখার পর নিজেকে আর ধরে টাখতে পারলাম না,,,,,বলে কান্না করতে থাকলো,,,আবার নিজে নিজে বললো,,না না আমি কেন কান্না করছি স্যার তো ঠিকিই বলেছেন,,পারি শুধু ঝগরা করতে,,,😭😭

এদিকে আয়ান আরোর জন্য চিন্তা করতে লাগলো,,,

আয়ান:কেন যে এতো কথা বলতে গেলাম,,,আচ্ছা আরো কি আমায় ক্ষমা করবে?? কাল sorry বলবো,,,,

পরদিন আরোকে তার মাম্মাম ডাকার আগে ওঠে গেল তা দেখে সবার চোখ কপালে,,যেন তারা আরোকে না কোনো ভূত দেখছে,,,

আরো:কি হলো তোমাদের??আমি কি কোনো এলিয়েন নাকি?এভাবে থাকিয়ে আছো কোন তোমরা??

আরিফ:মাম্মাম আমি যা দেখছি তুমিও কি তাই দেখছো??আমাকে একটা চিমটি কাঠো তো?

আরো জুরে চিমটি দিল,

আরিফ:পেত্নি এভাবে কেউ চিমটি দেই,,

আরো:দিতে বলেছিস ওই জন্য😏😏

রেহেনা রহমান:আজ সূর্য কোন দিকে ওঠলো শুনি,,

আরো:প্রতিদিন যেইদিকে ওঠে,,😒😒

আরিফ:তুই এতো সকাল কিভাবে ঘুম থেকে উঠেছিন,,আমার তো বিশ্বাস হচ্ছেনা,,

আরো:তুর বিশ্বাস নিয়ে তুই মুরি খা,,মাম্মাম নাস্তা দিবা নাকি চলে যাবো,,

রেহেনা রহমান:দিচ্ছি বস,,

আরো নাস্তা খেয়ে সাজিকে call দিল,,সাজি আসতেই অবাক,,

সাজি আরোকে চিমটি দিল,,

আরো:শাঁকচুন্নি, ডায়নি,পেত্নি,,, কালা উগান্ডার বউ,,পিশাচীনি,,চুড়ায়েল কাহিকে চিমটি দিছিস কেন,,??

সাজি:oops sorry আমি ভাবলাম কোনো ভূত দাড়িয়ে আছে,,কখনো তো তুকে call না দেওয়া পর্যন্ত ওঠিসনা তাই একটু চেক করে নিলাম,,

আরো:থাপ্পড় চিনস??সব দাত ফেলে দিব,,

সাজি:আমার দাত ফেলে দিলে বুঝি আমি দাড়িয়ে দাড়িয়ে মজা দেখবো??No way babs,,তুর দাত ও আমি একটা ও রাখবো না,,

আরো:😒😒😒

সাজি:আরো??

আরো:শুনছি বলতে থাক,,

সাজি:তুই ঠিক আছিস তো??

আরো:আমার আবার কি হবে,,

সাজি:স্যার কাল,,

আরো:please সাজি এই ব্যাপারে কথা বলিসনা,,ভালো লাগতেছেনা,,চল না হলে দেরী হয়ে যাবে,,

সাজি:ওকে চল,(আমি তো জানি তুই কি রকম কষ্ট পাচ্ছিস,,)

In College,,

জান্নাত:বাহ আজ দেখি আরো মেডাম এতো late করলো না,,

আরো:এই জন্যই দেরীতে আসি,,একদিন সকাল সকাল আসলে তুরা এতো পেচাল দিস

জান্নাত :আচ্ছা class এ চল,,

আরো:Sorry year,,এইবাবে বলতে চায়নি,,

জান্নাত : it’s ok,,আমি কিছু মনে করিনি,,😁😁

আরো:দাত কেলাচ্ছিস কেন? 😕😕

জান্নাত :এই মনে কর খুশিতে খুশির ঠেলায়,

আরো:এমন উস্টা মারবো সোজা গিয়ে জসিমের ঠেলা গাড়িতে পরবি,,

জান্নাত :😑😑😑

সাজি হাসতে হাসতে গড়াগড়ি খাচ্ছে,,

আরো:Class এ আয়,,

তিনজন class এ ডুকার আগেই দেখলো আয়ানের গাড়ি ডুকছে,,

আয়ান গাড়ি থেকে নেমে কিছুদূর আসতেই কোথা থেকে রায়া চলে আসে,,,,রায়া এসে আয়ানকে কালকের মতো আবার ঝড়িয়ে ধরে,,

রায়া:কেমন আছো আয়ান??

আয়ান:ভালো but রায়া এটা America না,, যখন তখন যেখানে সেখানে এভাবে ঝড়িয়ে ধরতে পারোনা,,

রায়া:Oops Sorry,,,

আয়ান :It’s ok,,

এতোক্ষণ আরো সব দেখছিল,,,মনের অজান্তে চোখ বেয়ে জল পড়তে লাগলো,,নিজেকে সামলাতে চোখের জল মুছলো,,

আরো:তুরা দাড়িয়ে থাকবি নাকি class এ যাবি,,

সাজি&জান্নাত : আসছি,,

তিনজন class. এ চলে গেল,,
,,,,,,,,

আয়ান:রায়া তুমি হঠাৎ এখানে?

রায়া:এমনি এলাম,,বাড়িতে বোর হচ্ছিলাম(কিভাবে বলি তুমাকে দেখাতে এলাম) আচ্ছা আায়ান আামাকে college ট। ঘুরে দেখাওনা,

আয়ান:Sorry রায়া আমার class এ যেতে হবে,

রায়া:একদিন class না করালে কিছুি হবে না,,আর তুমাকে কাল দিলাম ধরলানা যে?

আয়ান:ওহ,,খেয়াল করিনাই একটু busy ছিলাম,,আচ্ছা তুমি থাকো,,class এ যেতে হবে,,অন্য একদিন ঘুরে দেখাবো,,

রায়া:ok (মন খারাপ করে বললো,,)

আয়ান মনে মনে বললো,,

আয়ান:না জানি আরো class এ আসলো কিনা,,রায়ার হাব ভাব ভালো লাগছেনা,,কি যে করি,,,

আয়ান class এ আসতেই অবাক,,কারণ,

চলবে!!!
😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:10

আয়ান class এ আসতেই অবাক,,কারণ,,,

যেই আরো পুরো Class টাই মাতিয়ে রাখতো সেই আরো আজ চুপচাপ নোট লিখছে,,,

আয়ান অবাক হয়ে তাকিয়ে আছে,,আয়ান Class করছে ঠিকি কিন্তু আড়চোখে বারবার আরোর দিকে তাকাচ্ছে,,কিন্তু আরো নিচের দিকে তাকিয়ে পড়ছে,,,,

কিছুক্ষন পর আয়ান class শেষ করলো,,

আরো: সাজি আমি একটু ওয়াশরুমে যাচ্ছি,,,

সাজি:আমি সহ আসি??

আরো:না আমি যেতে পারবো,,,মাথাটা ব্যাথা করছে,,একটু মুখে পানি দিয়ে আসি,,,

সাজি:আচ্ছা যা,,

আরো ওয়াশরুমে যাচ্ছে হঠাৎ কেউ আরোকে হাত ধরে টান দিল,আরো টাল সামলাতে না পেরে কারো বুকের উপর পরলো,,মাথা ওঠিয়ে তাকাতেই দেখে আয়ানের বুকে লেপ্টে আছে,,আরো নিজেকে ছুটানোর চেষ্টা করছে,,

আরো:স্যার প্লিজ ছারুন,,

আয়ান:আরো আমাকে ক্ষমা করে দাও প্লিজ,,

আরো:আপনি কোনো অন্যায় করেননি ক্ষমা কি জন্য?

আয়ান:আরো কাল আমি ওইভাবে বলতে চায়নি বিশ্বাস করো,

আরো:স্যার please ছারুন,,কাল আপনি যেই কথাগুলা বলেছেন সব ঠিক ছিল,,আসলেই আমি সবার সাথে ঝগরা করি শুধু,,,,,,আর,,

আয়ান:না আরো,,

আরো: আমি এই বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাইছি না,,,,

আয়ান:আরো,,

আরো:Please sir,,আমার class আছে,,

আরো নিজেকে ছুটিয়ে চলে গেল,,

আয়ান:জানি আরো তুমি অনেক কষ্ট পেয়েছো,,,বাট কালকে রাগের মাথায় কি সব বলেছি,,,

আয়ান রাগের মাথায় দেওয়ালে জুরে ঘুষি দেয়,,ফলে হাত কেটে রক্ত পরতে থাকে,,,আয়ান নিজের ক্যাবিনে গিয়ে হাতে ব্যান্ডেজ করে নেই,,

আরো সাজি জান্নাত class শেষ হওয়সর পর বাড়ি যাওয়ার জন্য পা বাড়ালো,,,,

college তেকে তিনজন বের হলো,,,

সাজি:এই আরো জানতু চলনা ফুচকা খায়,,

জান্নাত :হুম চল,,

আরো:আমি ফুচকা খাব না ice-cream খাব
সাজি:ওকে,,

আরো ice-cream খাচ্ছে বাচ্চাদের মতো করে,,আয়ান এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,,

আয়ান:এতো cute হতে কে বলেছে তোমায়?উফ পুরাি কিউটিপাই,, কিন্তু তুমি তো আমার উপর রেগে আছো,,থাক তোমার এই রাগ আমি ভাঙাবোই,,

এদিকে তিনজন বিল পে করে বাড়ি চলে গেল,,,,,

আরো বাড়ি এসে lunch শেষ করে তার রুমে চলে গেল,,,,,বেলকনিতে দাড়িয়ে আয়ানের কথা ভাবছে,,,

আরো:ওহ আর একটু দাড়িয়ে থাকলে আমার হার্টটা বেড়িয়ে আসতো,,এভাবে আমাকে sorry না বলে ওই শাঁকচুন্নি টা বলতি শালা ধলা বিলায়,,ওই ডায়নি কে জরিয়ে ধরে এখন আমাকে আসছে sorry বলতে,, হাহ!😒😒দুর ভাল্লাগেনা,,,,,

এদিকে,,

আয়ান বাড়ি এসে lunch করে তার রুমের রকিং চেয়ারে বসে ভাবছে কি করে আরোর রাগ ভাঙাবে,,তখনি ডার মাথায় একটা idea এলো,,,
,,,,,,, ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আরো একটু ঘুমিয়ে বিকালে ওঠলো,,,,তারপর কফির মগ নিয়ে ছাদেঁ উঠলো,,,,

কফি খেতে খেতে একটু নিচে তাকাতেই আরোর চোখ কপালে কারণ নিচে আয়ান একটা sorry বোর্ড নিয়ে হাতে দাড়িয়ে আছে,,আর মুখে sorry বলছে,,,

আরো তো অবাক,, আয়ান তাকে এইভাবে বাসার নিচে সরি বোর্ড হাতে দাড়িয়ে আছে,,আরো সামনে ফিরে নিজে নিজে হাসলো আবার আয়ানের দিকে ফিরে রাগি ভাব নিয়ে তাকালো,,এমন ভাব করলো যেন আরো একটুও হাসেনি,,

আরো আয়ানকে মুক ভেঙিয়ে নিচে চলে এলো,,

আয়ান: বাবা গো বাবা আরোর এতো রাগ,,,,,কাল college এ একবার এসো,, রাগ যদি না ভাঙাই আমার নাম ও আয়ান না,,,

এরপর আয়ান আবার গাড়ি নিয়ে তার বাসায় চলে গেল,,

আরো তার রুমে এসে মুচকি মুচকি হাসতে লাগলো,,,আর নিজে নিজে বললো,,

আরো:বাপরে সরি বলার জন্য আমার বাসার সামনে চলে এলো??স্যার এর চোখে আজ অন্য কিছু দেখতে পেয়েছি,, তাহলে কি স্যার আমাকে? ধুর আমি এসব কি ভাবছি,,,স্যার এর জন্য তো ওই শাঁকচুন্নি টা আছে,,,

এই কথা ভেবে আরো আবার মন খারাপ করে ফেললো,,,তখনি তার গুনুধর ভাই আরিফ এলো,,

আরিফ:আপু আপু শননা,,

আরো:আমি তুর মতো বয়রা না ওকে?? শুনছি তুই বল,,,

আরিফ: তুই এরকম করছিস কেন,,আচ্ছা তুর মোবাইলটা আমাকে দে না পিলিজ!!

আরো:পিলিজ কি আবার??

আরিফ:যেটায় হোক না কেন,,,দে না,,

আরো:কেন রে পুচকু আমার মোবাইল দিয়ে তুই কি করবি?

আরইফ:লুডু খেলবো!!

আরো:তাহলে চল আমিও খেলি,,

আরিফ:সত্যই তুই খেলবি!!

আরো:আরে বাবা হে খেলবো,,

আরিফ:আচ্ছা আয় তাহলে,,

দুজনে লুডু কেলতে খেলতে সন্ধা হয়ে গেল,,আরিফ চলে গেল পড়তে,, আর আরো মাগরিবের নামাজ টা পরে একটু পড়তে বসলো,,সাথে কফির মগ,,এটা আরোর নিত্যদিনের অভ্যাস পড়তে বসলে সাথে কফি তাকতেই হবে,,,

পরদিন সকালে আরো রেডি হয়ে সাজি সহ college এ চলে গেল,,College গেট এ আসতেই,,

চলবে!!!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here