Surprise Lover -Part 17+18

0
223

😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:17+18

আয়ান class শেষ করে চলে যাওয়ার পর আরো যেন হাফ ছেড়ে বাচলো,,আরো একটু চোখ বন্ধ করতেই আয়ানের হাসিমাখা মুখটা ভেসে আসলো,,,আরোর ঠোটের কোণেও হাসি ফুটলো,,,,আরো চোখ খোলতে দেখে সবাই তার দিকে কেমন অবাক চোখে তাকিয়ে আছে,,,,আরো সামনে তাকাতেই অবাক কারণ সেকেন্ড ক্লাসের স্যার এসেছে সবাই দাড়িয়ে গেছে কিন্তু আরো এখনো বসে আছে,,, আরো তাড়াতাড়ি দাড়িয়ে গেলো,,,,,অতঃপর স্যার তাদের বসতে বললো,,,আরো বসে নিজের মাথায় নিজেই থাপ্পড় মেরে বললো,,

আরো:ছি ছি কি লজ্জায় পরলাম স্যার কি ভাববে এখন,,,,

স্যার ক্লাস করাচ্ছেন কিন্তু আরোর কিছুতেই মন বসছেনা,,বারবার আয়ানের কথা ভাবছে,,,

আয়ানেরও সেম অবস্তা,, ক্লাস করাতে পারছেনা,,আরোর হাসি মুখের সেই দৃশ্য চোখে ভাসছে,,,আয়ান নিজে নিজে ভাবছে,

আয়ান:(মিস কিউটিপাই, আমাকে পাগল করে দিয়েছো তুমি,,,,,মাথায় শুধু তুমি ঘুরঘুর করছো,,,কি করবো নিজেই বুঝতে পারছিনা),,আয়ান কোনো মতে ক্লাস শেষ করেছে,,,আরো ও সব ক্লাস কমপ্লিট করলো,,,,আরো,সাজি আর জান্নাত ক্লাস থেকে বের হচ্ছে কথা বলতে বলতে,,,অন্যদিক থেকে আসছে আয়ান ফোনে কথা বলতে বলতে,,,

দুজনে মুখোমুখি এলে আরো হেসে সামনে চলে গেল,,আয়ানও একটা হাসি দিয়ে চলে যাচ্ছে,,আরো কিছুদূর যেতে পিছন ফিরে তাকালো আয়ান তো চলে যাচ্ছে,,,আরো নিজের কপালে একটা থাপ্পড় মেরে আবার সামনে চলে গেল,,,আরো সামনে ফিরতে আয়ান পিছন দিকে তাকালে দেখে আরো সবার সাথে কথা বলতে বলতে যাচ্ছে,,আয়ান কিছুক্ষন দাড়িয়ে আবার চলে গেল,,,

রাতে আরো কিছুক্ষন পড়ে, টুনুমুনুকে😁কোলে নিয়ে বেলকনিতে গেল,,হাতে ফোন নিয়ে,,,আরোর মোবাইলে টুং করে মেসেজ আসলো,,,আরো মেসেজ ওপেন করতে অবাক,, মেসেজে লেখা ছিল,,

“সবসময় ওইভাবে তাকিয়ে তাকলে নজর পরতে পারে”

আরো নিজে নিজে বললো,

আরো:আহ খেয়ে দেয়ে কাজ নেই কোন শাঁকচুন্না কালা হাতি কে জানে,, তার দিকে নাকি আমি তাকিয়ে থাকি,,কে হতে পারে??
তখনি আবার মেসেজ আসলো,,

“এতো ভেবে লাভ নেই,,,By the Way তোমার টুনুমুনু কিন্তু সেই লেবেলের কিউট একদম তোমার মতো,,”

আরো:দাড়া কালা হাতি,,আরো মেসেজ লিখলো,,

“ভাইরে ভাই কে তুই,,এভাবে মেসেজ লিখছিস মনে হয় আমার পুরো গোষ্টিকে চিনিস কালা উগান্ডা কাহিকে”

(সবাই নিশ্চয় বুঝতে পারছেন কে হতে পারে,ঠিকি ধরেছেন এটা মিস্টার ধলা বিল্লু থুক্কু আয়ান😁😁)

আয়ান আরোর মেসেজ দেখে অবাকের চরম পর্যায়ে,,, আয়ান আর লুকাতে না পেরে বললো,,

আয়ান: মিস বিল্লিরাণি এগুলা কিরকম গালি একটু বলবেন?

আরো মেসেজটা দেখে Shocked,,,

আরো:হায় হায় কি সব গালি দিয়ে দিলাম Attitude বিল্লু কি ভাববে?😟😟আরো বললো,,

আরো:”ওহহো Attitude বিল্লু sorry sorry স্যার আপনি তাহলে,,”

আয়ান:জ্বী আমি,,বেশি কথা না বলে এখন পড়ো,,

আরো আর মেসেজ না দিয়ে নিজে নিজে বললো,,

আরো:নিজ থেকে মেসেজ দিলো আবার বললো “পড়ো” হায়রে পড়া,জ্বীবনটারে তেনা তেনা বানালি,,আচ্ছা একটা কথা বুঝতে পারছিনা স্যার আমার নামবার পেলো কই?ধুর আমি কোনো মহান ব্যক্তি না যে নামবার পাবেনা,,,আচ্ছা স্যার এর নামবার টা কি দিয়ে save করবো??

আরো একটু ভেবে নামবার save করলো,,

😻Attitude বিল্লু😻

আরো:একদম perfect Name😸এরপর আরো ঘুমিয়ে গেল,,,,,

এভাবে দিন যেতে লাগলো,,আয়ান কলেজের পুরো সময়টাতে আরোকে দেখে,,আর আরো সে তো আয়ানকে দেখে প্রতিনিয়ত crush খায়,,দিন যায়,আয়ান আরোর প্রতি অনেকটা দূর্বল হয়ে যায়,,আরো একটু একটু বুঝতে পারে,,আয়ানের সাথে আরোর টুকটাক কথা হতো,,কিন্তু যত সময় যায় তাদের কথা বলার সময় ততই লম্বা হয়,,কখনো কখনো রাত জেগে কথা হতো,,,,আরো প্রায় কলেজে ঝিমাতো,,এটা নিয়ে সাজি আর জান্নাত অনেক খুচাতো,,,,,,

অন্যদিকে রায়া আয়ানকে call করলে বিজি দেখাতো যার কারণে রায়ার সন্দেহ প্রবল বেগে বৃদ্ধি পায়,,,রায়া ভাবে সে হয়ত আয়ানকে হারিয়ে ফেলছে,,,রায়া অনেক বার আয়ানকে বলতে চেয়েছে কিন্তু পারেনি,,,

আকাশে প্রচুর মেঘ জমেছে,, এই বুঝি বৃষ্টি নামবে,,আরোর ছোটবেলা থেকে একটু বৃষ্টি পাগলি,,যতোবার বৃষ্টি হতো ততবার আরোর ভিজতে হবে,,এটা যেন একটা নেশা,,,,,,,,,,,,,, ,প্রত্যেকবারের মতো আরো গুটি গুটি পায়ে ছাদেঁ যায়,,,কারণ তার মাম্মাম টের পেলে অনেক বকবে,,আরো সবসময় কোনো না কোনো বাহানা দিয়ে বৃষ্টিতে ভিজে,,এবার একটু লুকিয়ে ভিজবে😇

আরো ছাদেঁ উটতেই ঝুম বৃষ্টি শুরু হলো,,,,,

চলবে!!!
😍Surprise Lover😍

#Arohi_Afrin

Part:18

আরো ছাদেঁ উটতেই ঝুম বৃষ্টি শুরো হলো,,,,

আরো পা টিপে টিপে সামনে এগোচ্ছে,, সাদা কামিজটা সম্পূর্ণ ভিজে একাকার,,, দুইহাত প্রসারিত করে বৃষ্টি উপভোগ করছে,আর গুন গুন করে গান গায়ছে,

❤আগে কত বৃষ্টি যে দেখেছি শ্রাবণে
জাগেনি তো এত আশা ভালবাসা এ মনে
সেই বৃষ্টি ভেজা পা’য়,,সামনে এলে হায়
ফোটে কামিনী,,,,,
আজ ভিজতে ভাল লাগে শুন্য মনে জাগে
প্রেমের কাহিনী,,,,,

#রিম ঝিম এ ধারাতে,,,চাই মন হারাতে
#রিম ঝিম এ ধারাতে,,,চাই মন হারাতে❤❤(প্রিয় একটি গান😻)
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আয়ানের একটা পুরোনো অভ্যাস আছে,,বৃষ্টি পরলে গাড়ি নিয়ে ছোট শহরটিতে ঘুরে বেরায়,,সব মানুষের অব্যাস কিন্তু এক না,,একেক মানুষের একেক ধরনের অভ্যাস,আবার সবার পছন্দ ও কিন্তু এক না,,আয়ানের ও সেম,,আয়ানেরও বৃষ্টি অনেক পছন্দের,, আয়ানের তার গাড়ির গ্লাসে লেগে থাকা বৃষ্টির ফোটাগুলিকে পর্যবেক্ষণ করতে ভালো লাগে,,,আয়ান ভাবলো প্রতিবারের মতো এবার ও ঘুরতে গেলে মন্দ হয়না,,,যেইভাবা সেই কাজ,,সাদা টি শার্ট,,কালো জিন্স পরে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পরলো,,

আয়ান ড্রাইভ করছে এমন সময় তার মাথায় এলো এক বুদ্ধি,,,,

আয়ান:আচ্ছা আমার মতো কি আরোর ও বৃষ্টি ভালো লাগে??হয়তো লাগতে পারে আবার না ও লাগতে পারে,,আমার পছন্দ বলে ওরও পছন্দ হবে এমন কোনো কথা নেই,,যাই হোক আরোর বাড়ির পাশ দিয়ে যায় আজ,,,,

আয়ান গাড়ি ঘুড়িয়ে আরোর বাড়ির দিকে যেতে লাগলো,,,,,আরোর বাড়ির ছাদেঁর নিচ বরাবর গাড়ি দাড় করালো,,আয়ান গাড়ির গ্লাস থেকে আরোকে সামান্য দেখতে পেলো,,কিন্তু তেমন বুঝা যাচ্ছেনা,,,আয়ান গাড়ি থেকে নেমে গেল,, আর গাড়ির সাথে হেলান দিয়ে দাড়িয়ে আরোকে দেখার চেষ্টা করছে,,,,

আয়ান আরোকে দেখে অবাক হওয়ার চরম পর্যায়ে,,,,, আরোর মুখে বৃষ্টির ফোটা লেগে আছে,,,,কিছু চুল ভিজার কারনে সামনে লেপ্টে রয়েছে,,,হাতে থাকা সাদা কাচের চুড়ি গুলাতেও বৃষ্টির ফোটা পড়েছে যার কারণে আরোর হাতের সৌন্দর্য দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে,,,আয়ান আরোকে যত দেখছে ততই অবাক হচ্ছে,,এই মূহুর্তে আয়ান আরোর কিছু ছবি নিজের ফোনের কেমেরায় বন্ধি করে নিয়ে ফোন আবার রেখে দিল,,,আর মনে মনে বলছে,,,

আয়ান:মিস কিউটিপাই তো দেখছি আমার চেয়েও এক ধাপ উপরে,,বৃষ্টি পাগলি,, এই রুপে কেউ দেখলে নিশ্চিত তোমার প্রেমে দেওয়ানা হয়ে যাবে,,আমি নিজেও অনেক আগে তোমার মাঝে হারিয়ে গেছি,,

আরো তো বৃষ্টি বিলাস করছে,,তার চারপাশে কোনো খেয়াল নেই,,দুই জোড়া চোখ যে তাকে এতোক্ষণ ধরে পর্যবেক্ষণ করছে তার কোনো খেয়াল নেই,,,,,আরো কি জেনো ভেবে একটু নিচে তাকালো,,,বৃষ্টির বেগ এতো প্রবল ছিলো আরোর বারবার চোখ বন্ধ হয়ে আসছে,, তাও নিভো নিভো চোখে দেখার চেষ্টা করছে,,মুখটা স্পষ্ট দেখতে পারছেনা,,

বৃষ্টির কারণে আয়ানের জামা গায়ের সাথে মিশে গিয়েছে,,,,সামন্য ২/১ টা চুল কপালে লেপ্টে রয়েছে আর চুল গোলা থেকে টিপ টিপ পানি পরছে,,,,,

আরো বুঝের উঠার আগে আয়ান গাড়িতে উঠে গেল,,আরো বোকা বনে গেল,,,আরোও আর ভিজলো না,,নিচে গিয়ে fresh হয়ে নিল,,তোয়ালে দিয়ে চুল মুছতে মুছতে বেলকনিতে এলো,,,,আরিফ এসে আরকে ডাক দিলো,

আরিফ:আপু নে তোর জন্য কফি

আরো:বাবা গো বাবা তুই আমার জন্য কফি এনেছিস?

আরিফ:আমি এনেছি কিন্তু মাম্মাম বানিয়ে দিয়েছে,,,

আরো:কি??মাম্মাম??

আরিফ:জি মেরি বেহেন,, মাম্মাম,, আর আপনি যে ছাদেঁ গিয়ে ভিজেছেন সেটাও জানে,,

আরো:কি?পাপ্পা ও জানে?

আরিফ:আজ্ঞে মহারাণী সবাই জানে,,,এবার আপনি কফি নিলে অত্যন্ত খুশি হবো,,

আরো:ওরে আমার পাকনা বুড়ো রে,,,

আরিফ:একটু পর যখন নিচে যাবি মাম্মা পাপ্পা তুর খবর করবে রে,😂

আরো:দাড়া আগে তুর খবর করি,

আরিফ ভয়ে দৌড় দিল,,,,আরো একটু হেসে এক হাতে কফির মগ আরেক হাতে টুনুমুনু কে নিয়ে বেলকণির রাখা একটা চেয়ারে বসলো,,,কফির মগে এক চুমুক দিতে মনে পড়লো ছাদেঁর নিচে দাড়িয়ে থাকা সেই মানুষটার কথা,,,

আরো:কে হতে পারে এই মানুষটা?? আয়ান স্যার নয়তো??উনি কেন আমার বাসার নিচে আসবে??একটা কল করে জিজ্ঞাস করবো কি??না না থাক কি না কি মনে করবে,,,,,ধুর যেই হোক,,,,, আচ্ছা স্যার এর সাথে কি কখনো বৃষ্টি বিলাস করার সুযোগ পাবো??যদি উনি বৃষ্টি পছন্দ না করেন তো??আরে আমি কি আবোল তাবোল ভাবছি,,উনি তো এখনো আমাকে ভালোবাসের কিনা তাও জানিনা,,কি যানি,,

আরো একটা দীর্ঘশ্বাস ফেললো,আর খফি শেষ করলো,,লান্চ টাইমে আরো নিচে যাওয়ার আগে একটু দোয়া দরুদ পড়তে লাগলো,(কখন কি হয় ঠিক নেই আরোর মাম্মাম কি না কি বলে😉)

আরো সিড়ি দিয়ে নিচে নামছে আর এমন ভাব করছে যেন সে কিছুই করেনি,,

রেহানা রহমান: তো মহারাণী আজ কি কারণে বৃষ্টিতে ভিজেছেন শুনি??

আরো:আ,,আ,,মাম্মাম কি যে বলোনা,,ও,,ই ছা,,দে কাপড় শু,কা,তে দিয়ে,ছিলাম তো,, তা,ই আ,নতে গিয়েছিলাম(তোতলিয়ে বললো)

রেহেনা রহমান:তাই??তো তোতলাচ্ছিস কেন শুনি??

আরো:ক,,কই?

রেহেনা রহমান:চুপ একদম চুপ,,যতোবার বৃষ্টি হবে ততোবার কি ভেজা প্রয়োজন?

আরো:মাম্মাম তুমি তো জানো আমি বৃষ্টি কত্তো পছ্ন্দ করি(নিচের দিকে তাকিয়ে কান্না কান্না face করে বললো)

রেহানা রহমান হেসে দিল আরোর ফেচ রিয়েকশন দেখো,,আর বললো,

রেহানা রহমান:থাক আর ডং করিসনা,এইবার খেতে আয়,,,আরো খেতে বসলো,তখন তার পাপ্পা বললো,,

আফজাল রহমান:মামনি তুমি যে এভাবে বৃষ্টিতে ভিজো তাহলে তো শরীর খারাপ করবে তাই না?

আরো মাথা নিচু করে বললো”জ্বী পাপ্পা”

আফজাল রহমান:হুম এইবার খাওয়া শুরু করো,,,,

সবাই খাওয়া কমপ্লিট করলো,,,,,,,,
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

আয়ান গাড়ি নিয়ে আসার পর ঘরে ডুকলেই মম বললো,,

রিমা চৌধুরি:কিরে কাক ভেজা হয়ে এলি যে?

আয়ান কিছু বললো না শুধু একটু মিচকি হাসলো,,,,

রিমা চৌধুরি:আচ্ছা fresh হয়ে আয়,,

আয়ান উপরে গিয়ে শাওয়ার নিতে গেল,,,,শাওয়ারের নিচে কিছুক্ষন দাড়িয়ে রইলো,,,এরপর তোয়ালে পরে আয়নার সামনে দাড়ালো,,,,,আয়ানের ঠোটে এখনো সেই মুচকি হাসির রেখা,,,,,,, সে কিছুতেই আরোর সেই চেহারা ভুলতে পারছেনা চোখের সামনে শুধু আরোর সেই চেহারাটা ভাসছে(প্রেমে পড়লে যা হয় আর কি😜😜)

পরদিন আয়ান কলেজে গেল,,ডার চোখ দুটি বারবার আরোকে খুজতে লাগলো,,,,,,গেইটের দিকে তাকতেই ডার চোখ আটকে গেল,,,,

আরো ব্লু কালার লং টপস আর হুয়াইট জিন্স পরে এসেছে,,গলায় সাদা স্কার্ফ ঝুলানে,,আয়ান ভাবছে, “আরোকে ব্লু আর হুয়াইটে এতোটা কিউট লাগে বলার বাহিরে”

আরোর চোখ গেল আয়ানের দিকে,,আরো দেখলো আয়ান তার দিকে তাকিয়ে আছে,,আরো লজ্জায় মাথা নিচু করে ফেললো,,লজ্জা পেলে আরুকে আরোও কিউট লাগে,,,,,আয়ানও মুচকি হেসে তার কেবিনে গেল,,আরোও চলে গেল,,সাজি আর জান্নাত খেয়াল করলো বেপারটা,,,

সাজি:কি মিস আরো স্যার আর তুর মধ্যে কি সামথিং সামথিং চলে নাকি?

আরো: এমন কিছুনা(একটু লজ্জামাখা ফেচ নিয়ে বললো)

জান্নাত :বুঝি বুঝি,,আচ্ছা সত্যি করে বলতো তুই স্যারকে love করিস না?

আরো:ধুর জানিনা,,Class এ আয়,,আরো লজ্জা পেয়ে চলে গেল,,

সাজি:বেচারি লজ্জা পেয়েছে চল,,,,,

আয়ান ক্লাস করাচ্ছে ঠিকি কিন্তু সে ক্লাস করাচ্ছে কম আরোকে দেখছে বেশি,,আরো বেপারটা বুঝতে পেরে মাথা নিচু করে রইলো,,,

পরপর তিনটা ক্লাস শেষ হলো,,,,,আরো বললো,,,

আরো:দোস্ত মাথা ঘুরাচ্ছে,,আমি একটু মুখে পানি দিয়ে আসি,,

জান্নাত :আমরা সহ আসি?

আরো:না না আমি যেতে পারবো,,

সাজি: আচ্ছা যা,,,

আরো ওয়াশরুমে গিয়ে মুখ পানি দিয়ে আসতেই,,

চলবে!!!!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here